বিবিসি হ্যাকড!

বিবিসি হ্যাকড!

হ্যাকাররা বসে নেই। বিশ্বের ছোটখাটো ওয়েবসাইট থেকে শুরু করে নামিদামি সাইটও হ্যাকিং এর কবলে পড়ছে। যেমনটি ঘটে গেল বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও পুরনো সম্প্রচার মাধ্যমে বিবিসির বেলায়ও। খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ক্রিসমাসে সাইটটি হ্যাকারদের কবলে পড়ে।

ধারণা করা হচ্ছে, রাশিয়ান হ্যাকার দ্বারা আক্রান্ত হয় বিবিসি। হ্যাকাররা বিবিসির সার্ভারের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সেখানে তারা ক্রিসমাস দিবসের প্রচারণা চালায় এবং অন্যান্য সাইবার অপরাধীদের কাছে ওই সার্ভারে ঢোকার প্রক্রিয়া-পদ্ধতি বিক্রি করতে চায়।

তবে, বিবিসির নিরাপত্তা টিম দ্রুত সাইটি উদ্ধার করতে সক্ষম হন।

এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে অপারগতা জানিয়েছেন বিবিসির এক মুখপাত্র। তিনি বলেন, আমরা বিবিসির নিরাপত্তা ইস্যুতে কোন মন্তব্য করি না।

মিলওয়াকি শহরে অবস্থিত একটি সাইবার নিরাপত্তা ফার্ম প্রথম এ সাইবার হামলা শনাক্ত করে।

ওই ফার্মের গবেষকরা প্রথম লক্ষ করেন ‘হ্যাশ’ ও ‘রিভলভার’ মানে পরিচিত রাশিয়ার কুখ্যাত হ্যাকার ২৫ ডিসেম্বর ওই সার্ভারে ঢোকার প্রক্রিয়া-পদ্ধতি বিক্রির চেষ্টা করে।

সম্প্রচার মাধ্যমটি প্রায়ই এ ধরনের সাইবার হামলার শিকার হয়। গত বছর বিবিসি ইরান এ হামলার শিকার হয়।

সিরিয়ার হ্যাকাররা যখন বার্তা সংস্থা এপির অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তাবূহ্য ভেঙ্গে ফেলে ও হোয়াইট হাউজে সাইবার হামলা সম্পর্কে একটি মিথ্যা ঘটনা প্রচার করে, ঠিক এর কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে মার্কিন শেয়ার বাজার ১৪৩ পয়েন্ট নিচে নেমে যায়।

সিরিয়ার সাইবার হামলাকারীরা নিজেদের ‘ইলেকট্রনিক আর্মি’ বলে পরিচয় দেয়। তারা এ বছরের শুরুতে গার্ডিয়ান পত্রিকা, বিবিসি ও ফ্রান্স ২৪ টেলিভিশন চ্যানেলে সাইবার হামলার দায় স্বীকার করে নিয়েছে।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ