Home / বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি / শিক্ষামূলক সাইটও ব্লক করছে পর্নো ফিল্টার
শিক্ষামূলক সাইটও ব্লক করছে পর্নো ফিল্টার

শিক্ষামূলক সাইটও ব্লক করছে পর্নো ফিল্টার

প্রধান ইন্টারনেট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর পর্নোগ্রাফি ফিল্টার পর্নোগ্রাফি সাইটের পাশাপাশি ব্লক করে দিচ্ছে বিভিন্ন যৌনবিষয়ক শিক্ষামূলক সাইট ও যৌনস্বাস্থ্যবিষয়ক পরামর্শদাতা সাইটগুলোও।

এক প্রতিবেদনে বিবিসি জানিয়েছে, ২০১১ সালের মে মাসে প্রথম টকটক প্রতিষ্ঠানটি ফিল্টার সেবা শুরু করে। এরপর ক্রমান্বয়ে ফিল্টার সেবা নিয়ে এসেছে স্কাই এবং ব্রিটিশ টেলিকম। আর ২০১৪ সালের প্রথমদিকে ফিল্টার সেবা নিয়ে আসবে ভার্জিন।

টকটকের ফিল্টার বিশইউকে.কম নামের একটি সাইট ব্লক করে দিয়েছে। সাইটটি ছিল ব্রিটেনে পুরস্কারপ্রাপ্ত একটি যৌন শিক্ষামূলক সাইট। এমনকি ‘এডিনবার্গ ওমেনস রেপ অ্যান্ড সেক্সুয়াল অ্যাবিউস সেন্টার’-এর ওয়েবসাইটকেও পর্ণোগ্রাফিক হিসেবে তালিকাভুক্ত করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটির ব্লকের শিকার হয়েছে যৌনতাবিষয়ক শিক্ষাদানে পারদর্শীদের একটি প্রোগ্রাম। সাইটটির মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের ৮১ হাজার শিশুদের এ সম্পর্কিত শিক্ষা দেওয়া হত। স্কাইয়ের ফিল্টারের মাধ্যমেও ব্লক হয়েছে এ রকম ছয়টি ওয়েবসাইট।

এ বিষয়ে টকটকের মুখপাত্র জানিয়েছেন, “দুঃখজনক হলেও সত্যি ইন্টারনেট নিরাপত্তা ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ নিশ্চিত হওয়া সম্ভব নয়” এবং তারা আগেই জানিয়েছেন কোনো সমাধানই শতভাগ নিশ্চয়তা দিতে পারবে না। অন্যদিকে স্কাইয়ের মুখপাত্র জানিয়েছেন, তারা জানেন একা কোনো প্রযুক্তির পক্ষে এ সমস্যার সমাধান করা সম্ভব নয়। আর তাই তারা সমাধানের জন্য রেখেছেন সহজ একটি পথ।স্কাই ব্যবহারকারীরা চাইলেই তাদের ফিল্টার সম্পূর্ণরূপে কাস্টোমাইস করে সাইটগুলো আনব্লক করে নিতে পারবেন।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ