Home / জাতীয় / ঘোষণা দিলেও চলছে না দূরপাল্লার বাস

ঘোষণা দিলেও চলছে না দূরপাল্লার বাস

অবরোধের মধ্যে দূরপাল্লার যান চলাচল শুরু করার ঘোষণা দিলেও তেমন কোন সাড়া মেলেনি। রাজধানীর গাবতলি, সায়েদাবাদ বাসস্ট্যান্ড থেকে ছাড়ছে না যানবাহন। মহাখালি বাসস্ট্যান্ড থেকে রাজধানীর আশপাশের জেলাগুলোতে পুলিশ প্রহরায় কিছু বাস ছেড়েছে আজ। কিন্তু যাত্রীসংখ্যা রয়েছে খুবই কম। অধিকাংশ মালিক ও চালকরা যাত্রী কম থাকায় বাস ছাড়তে চাচ্ছেন না। ঢাকার আশপাশের বিভিন্ন জেলায় আমাদের প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন, নিরাপত্তা ব্যবস্থার মাধ্যমে পণ্যবাহী কিছু ট্রাক চলাচল করলেও দূরপাল্লার যান চলাচল করছে না। বিভিন্ন জেলায় সেনাবাহিনী অবস্থান করছে। শীতকালীন মহড়ার অংশ হিসাবে তারা বিভিন্ন সড়কে টহল দিচ্ছে। অবরোধে বিরোধী দলকে বিচ্ছিন্নভাবে মিছিল ও পিকেটিং করতে দেখা যাচ্ছে। মোরশেদ শাহরিয়ার নরসিংদী থেকে জানান, সেনাবাহিনীর সদস্যরা শুক্রবার বিকাল থেকে স্টেডিয়ামে অবস্থান অবস্থান করছেন। তারা বিভিন্ন সড়কে টহল দিয়েছেন শীতকালীন মহড়ার অংশ হিসাবে। এদিকে অবরোধ কর্মসূচিতে আজ ভোরেও ঢাকা সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে মিছিল হয়েছে। জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি খাইরুল কবির খোকনের নেতৃত্বে কয়েকশ’ নেতাকর্মী কিছুক্ষণ অবরোধ করে রাখে। তবে এলাকায় তোমন কোন পুলিশি এ্যকশনের ঘটনা ঘটেনি। দূরপাল্লার বাস চলাচল রয়েছে বন্ধ। ময়মনসিংহ থেকে মতিউল আলম জানান, অবরোধে ময়মনসিংহের পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। সেখানে মাঝে মধ্যে বিরোধী দলের মিছিল হয়। দূরপাল্লার বাস চলাচল রয়েছে বন্ধ। গতকাল ঢাকা থেকে পুলিশ প্রহরায় কিছু বাস ময়মনসিংহে পৌঁছেছে। তবে তাতে যাত্রী সংখ্যা খুবই কম ছিল। আজও ময়মনসিংহ থেকে ঢাকা মুখী কোন বাস ছাড়েনি। ইকবাল সরকার গাজীপুর থেকে জানান, ঢাকা-গাজীপুরে বেশ কিছু লোকাল বাস চলাচল করছে। তবে গাজীপুর চৌরাস্তার উপর দিয়ে ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইলসহ উত্তরবঙ্গ অভিমুখে দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল করছে না। মানিকগঞ্জ থেকে রিপন আনসারী জানান, ঢাকা থেকে দক্ষিণাঞ্চলের যোগাযোগের জন্য দূর পাল্লার কোন বাস যাতায়াত করছে না। তবে পুলিশ পাহারায় কিছু পণ্যবাহি ট্রাক চলতে দেখা গেছে। দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ফেরিঘাটে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থায় ওই ট্রাকগুলো পারাপার হচ্ছে। শীতকালীন মহড়ার জন্য বিভিন্ন স্থানে ক্যাম্প গঠন করেছে সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে শীতকালীন মহড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। নারায়নগঞ্জ থেকে বিল্লাল হোসেন রবিন জানান, শহরের সাইন বোর্ড এলাকায় সেনাবাহিনীর সদস্যরা শীতকালীন মহড়ার জন্য অবস্থান করছে। তবে অবরোধে গাড়ী চালানোর ঘোষণা দেয়া হলেও রাত অবধি কোন গাড়ী নারায়নগঞ্জ থেকে ছাড়েনি। চিটাগাং রোড, সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকা থেকেও কোন গাড়ী ছাড়ার খবর নেই। তবে নারায়নগঞ্জ শহর ও এর আশপাশের সিদ্ধিরগঞ্জ, ফতুল্লাসহ বিভিন্ন এলাকায় বিরোধী দল বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের কর্মীদের কোন সহিংসতা লক্ষ করা যায়নি। গত তিনদিনে কোন মিছিলও করেনি তারা। শহরের বাইরে আড়াইহাজারের কয়েকটি গ্রামে ও মন্সিগঞ্জের সীমানার দিকে পেট্রোল দিয়ে রাস্তায় আগুন জ্বালিয়েছে তারা। রাজধানীর বিভিন্নস্থানেও সেনাসদস্যরা অবস্থান নিয়েছেন। তবে এটা স্থানীয় প্রশাসনকে সহায়তার জন্য, না শীতকালীন মহড়ার অংশ, তা জানা যায়নি। এ নিয়ে স্পষ্ট কোনো বক্তব্যও পাওয়া যায়নি। গত বৃহস্পতিবার থেকেই সেনাসদস্যরা দেশের বিভিন্ন জেলা শহরে অবস্থান নেন। ওই দিন আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর থেকে বলা হয়, সেনাসদস্যরা শীতকালীন প্রশিক্ষণ মহড়ায় নিয়োজিত রয়েছেন।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ