Home / জাতীয় / রাজনীতিবিদরা জামায়াত-শিবিরের গুপ্ত হত্যার স্বীকার হতে পারেন

রাজনীতিবিদরা জামায়াত-শিবিরের গুপ্ত হত্যার স্বীকার হতে পারেন

যুদ্ধাপরাধ ইস্যুতে বেকায়দায় জামায়াত ইসলাম। নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্বাবধায়ক সরকারের অধিনে নির্বাচন অনুষ্টিত হতে হবে-এ দাবি এখন আর জামায়াত-শিবির তুলছে না। তাদের একটাই লক্ষ্য মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ ট্রাইব্যুনাল ভেঙ্গে দিয়ে যুদ্ধাপরাধ বিচার বন্ধ করা। এ লক্ষ্যে পরিচালিত সরকার বিরোধী আন্দোলন জমাতে না পেরে শেষ পর্যন্ত রাজনীতিবিদদের হত্যার পরিকল্পনা আঁটছে দলটি। এখন তালিকা করে জামায়াত-শিবির গুপ্ত হত্যা চালাতে পারে। এমনই একটি প্রতিবেদন করেছে দেশের প্রভাবশালী দুটি গোয়েন্দা সংস্থা।
দেশের রাজনীতিবদের জামায়াত-শিবির গুপ্ত হত্যা চালাতে পারে-এ তথ্যটি আজ নির্বাচন কমিশনও জমা দিয়েছে গোয়েন্দা সংস্থা দুটি। গোয়েন্দা সংস্থা ও নির্বাচন কমিশন যৌথভাবে ঝুকিতে থাকা রাজনীতিবিদদের তালিকা করছেন। যেসব রাজনীতিবিদ জামায়াত-শিবিরের গুপ্ত হত্যার স্বীকার হতে পারেন তাদেরকে নিরাপত্তা দিবে সরকার।

এদিকে, জামায়াত-শিবিরের কিলিং মিশনের সদস্যেদের একটি তালিকা করেছে গোয়েন্দারা। এক দুইদিনের মধ্যে অভিযান শুরু হবে। তালিকা অনুযায়ী গ্রেপ্তার করবে যৌথ বাহিনী।
একটি গোয়েন্দা সংস্থা জানিয়েছে, বেছে বেছে এমন সব রাজনীতিকদের হত্যা করা হবে যা দেখে সাধারণ মানুষ ভয় পান। সরকারের সমর্থক, কর্মী ও নেতাদের মনোবল ভেঙ্গে দেওয়ার জন্যই এ হত্যাকাণ্ড পরিচালিত হবে।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ