Home / জাতীয় / কাদের মোল্লার ফাঁসির জল্লাদ যারা

কাদের মোল্লার ফাঁসির জল্লাদ যারা

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ট্রাইব্যুনালের রায়ে মৃত্যুদণ্ডাদেশ পাওয়া জামায়াত নেতা আব্দুল কাদের মোল্লার ফাঁসির রায় কার্যকর করা এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। ফাঁসি কার্যকর করতে ছয়জন জল্লাদের নামও প্রাথমিকভাবে চূড়ান্ত করা হয়েছে।

জল্লাদদের নেতৃত্বে থাকবেন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের বন্দি শাহজাহান ভূইয়া। তার সহকারী হিসেবে যে পাঁচজন থাকবেন তারাও ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারেই আছেন।

শাহজাহান দুটি খুনের মামলায় ৬০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি। তার গ্রামের বাড়ি নরসিংদী। ২০০৭ সালের ২৭ জানুয়ারি ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার পাঁচ কয়েদি বজলুল হুদা, মুহিউদ্দিন আহমেদ (আর্টিলারী) সৈয়দ ফারুক রহমান, সুলতান শাহারিয়ার রশীদ খান ও এ কে এম মহিউদ্দিনের (ল্যান্সার) ফাঁসির রায় কার্যকরে প্রধান জল্লাদ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন এই শাহজাহান।

এ ছাড়া আলোচিত শারমিন রিমা হত্যা মামলার আসামি মনিরকে ফাঁসি দেয়া জল্লাদ হিসেবেও তিনি দায়িত্ব পালন করেন। কুখ্যাত খুনি খুলনার এরশাদ সিকদারের ফাঁসি কার্যকর করতে শাহজাহানকে ওই সময় কাশিমপুর কারাগার থেকে খুলনায় নেওয়া হয়েছিল। ২০০৭ সালের মার্চে কাশিমপুর কারাগারে জঙ্গী মামুনের ফাঁসির সময়ও জল্লাদের দায়িত্ব পালন করেন শাহজাহান।
ওই সময় সহজল্লাদের দায়িত্বে থাকা কালু মিয়াও জল্লাদের তালিকায় নাম লিখিয়েছেন। হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি কালু ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার কয়েদিদের ফাঁসির রায় কার্যকরের সময়ও তিনি সহজল্লাদের দায়িত্ব পালন করেন।
কালু সাভারের জোড়া খুনের মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি। তার বাসা রাজধানীর মোহাম্মদপুরে। তিনি এখন পর্যন্ত ১৩টি ফাঁসির রায় কার্যকর করেছেন।
কারাগার সূত্রে জানা যায়, কাদের মোল্লার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার সময় পাঁচ জল্লাদকে শাহজাহানের সহযোগী হিসেবে মঞ্চের পাশে রাখা হবে। ফাঁসির মঞ্চের পাশে অন্যদের সাথে দাঁড়িয়ে থাকবেন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের তত্ত্বাবধায়ক। তার হাতে থাকবে একটি লাল রুমাল। হাত থেকে রুমালটি মাটিতে পড়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে জল্লাদ মঞ্চের লিভার (লোহার তৈরি বিশেষ হাতল) টেনে দেবেন, এতে পায়ের তলা থেকে কাঠ সরে ফাঁসি কার্যকর হবে। এরপর লাশটি আধা ঘণ্টা ধরে গলায় রশি দেওয়া অবস্থায় কুয়ার ওপর ঝুলতে থাকবে।
সূত্র জানায়, কাদের মোল্লার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে দিনক্ষণ গণনা শুরু হয়েছে। তবে নিরাপত্তার কারণে কবে, কখন, কোথায় মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হবে তা বলছেন না কারা কর্মকর্তারা।
কারা সূত্র জানায়, এখন পর্যন্ত সিদ্ধান্ত আছে, কাদের মোল্লার ফাঁসি ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে কার্যকর হবে। এ জন্য ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের দুটি ফাঁসির মঞ্চের মধ্যে একটিকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।
কয়েকজন কারারক্ষী জানান, ফাঁসির মঞ্চ ধোয়ামোছা চলছে এবং ফাঁসির জন্য যে রশি ব্যবহার হবে, তা পিচ্ছিল করতে তেল দেওয়া হচ্ছে।
সূত্র জানায়, ট্রাইব্যুনাল অ্যাক্ট অনুযায়ী কাদের মোল্লার ফাঁসির রায় যেকোনো দিন কার্যকর করা যেতে পারে। এখন শুধু সরকারের নির্দেশনার অপেক্ষা। নিশ্চিত কোন দিনক্ষণ সম্পর্কে তথ্য না পাওয়া গেলেও দিন যে খুব বেশি নেই কারাগারের পরিবেশ দেখেই তা বোঝা যাচ্ছে। বিষয়টি স্পর্শকাতর হওয়ায় কোনো কর্মকর্তাই নাম প্রকাশ করে বক্তব্য দিতে রাজি হননি।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ