Home / জাতীয় / ঢাকার পাড়া মহল্লায় ‘বিজয় মঞ্চ’ গড়ে তোলার আহ্বান

ঢাকার পাড়া মহল্লায় ‘বিজয় মঞ্চ’ গড়ে তোলার আহ্বান

জামায়াত নেতা কাদের মোল্লার মৃত্যুদ-ের রায় কার্যকরকে কেন্দ্র করে বিএনপি-জামায়াত যাতে কোন ধ্বংসাত্মক কর্মকা- চালাতে না পারে সে জন্য ঢাকার প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় ‘বিজয় মঞ্চ’ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ নেতারা। তাঁরা সজাগ ও সতর্ক অবস্থানে থেকে রাজপথে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তির সকল ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত মোকাবেলারও নির্দেশ দিয়েছেন নেতাকর্মীদের।
সোমবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা থেকে এ নির্দেশ দেয়া হয়। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আজ মঙ্গলবার বেলা ২টায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন মঞ্চের ব্যানারে সমাবেশ করবে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দল। বিজয়ের মাসে স্বাধীনতাবিরোধী অপতৎপরতা রুখতেই এ সমাবেশের আয়োজন। সমাবেশ সফল করতেই এ বর্ধিত সভা।
বিজয়ের মাসে জামায়াত-শিবিরকে চিরতরে নিশ্চিহ্ন করে দেয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন নেতারা। বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, যে কোন দিন ফাঁসির রায় কার্যকর হতে পারে যুদ্ধাপরাধী কাদের মোল্লার। আর এই রায় কার্যকরকে সামনে রেখে রাজধানীসহ দেশে বিভিন্ন নাশকতা চালাতে পারে যুদ্ধাপরাধীদের দল জামায়াত-শিবির। আর এ কারণে এখন থেকেই রাজধানীর প্রতিটি ‘পাড়া-মহল্লায়’ জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সতর্ক পাহাড়ায় থাকতে হবে নেতাকর্মীদের। রায় কার্যকরের পূর্ব মুহূর্ত থেকে প্রতিটি থানা-ওয়ার্ড ও মহল্লায় ‘বিজয় মঞ্চের’ আদলে ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে থেকে বিজয় মিছিল ও সকল ধরনের নাশকতা প্রতিরোধ করতে নগর নেতাদের নির্দেশ দেয়া হয়।
বৈঠকে আইন প্রতিমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, এটা বিজয়ের মাস। এ মাস সম্পূর্ণই আমাদের। এই মাসে স্বাধীনতাবিরোধীরা লাফা লাফি করবে আর আমরা চুপ করে থাকবÑ এটা হতে পারে না। তাদের কোন প্রকার কর্মসূচী করতে দেয়া হবে না। তাদের চিরতরে নিশ্চিহ্ন করে দিতে হবে। তিনি বলেন, বিদেশী বন্ধুরা সমঝোতার চেষ্টা করছে, তাদের ধন্যবাদ। কিন্তু বিএনপি নির্বাচনে আসবে না। সমঝোতাও হবে না। কারণ বিএনপি জামায়াতের সঙ্গ কখনও ত্যাগ করবে না, সমঝোতায়ও আসবে না। বিএনপি যতই টালবাহানা করুক কোন লাভ হবে না। আগামী নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে হবে।
কাদের মোল্লার রায় কার্যকরের বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিচার কাজ সম্পন্ন হয়েছে, মৃত্যু পরোয়ানাও জারি করা হয়েছে। এখন রায় কার্যকর করা সময়ের ব্যাপার মাত্র। যে কোন দিন রায় কার্যকর করা হবে। বিজয়ের মাসে এ রায় কার্যকরের মধ্য দিয়ে আরেকটা বিজয়ের সূচনা করা হবে।
নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, নগর নেতা ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, মুকুল চৌধুরী, শাহে আলম মুরাদ, সহিদুল ইসলাম মিলন প্রমুখ।
শহীদ মিনারে মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশ আজ ॥ আজ মঙ্গলবার বেলা ২টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন মঞ্চের ব্যানারে মুক্তিযোদ্ধারা সমাবেশ করবে। বিজয়ের মাসে স্বাধীনতাবিরোধী অপতৎপরতা রুখতেই এ সমাবেশের আয়োজন। সমাবেশে আওয়ামী লীগ, ১৪ দলসহ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী মানুষ অংশ নেবেন। সভাপতিত্ব করবেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান।
শিখা চিরন্তনে আজ শ্রদ্ধা নিবেদন করবে ১৪ দল ॥ মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের স্মরণে আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টায় ঐতিহাসিক সোহ্রাওয়ার্দী উদ্যানের শিখা চিরন্তনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করবে কেন্দ্রীয় ১৪ দল। এই শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্য দিয়ে ১৪ দল ঘোষিত বিজয়ের মাসের কর্মসূচীর সূচনা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ