Home / জাতীয় / শপথ গ্রহণ সংবিধানের লঙ্ঘন
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

শপথ গ্রহণ সংবিধানের লঙ্ঘন

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিতদের শপথ গ্রহণকে সংবিধান লঙ্ঘন হিসেবে অভিহিত করে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘সংবিধান অনুযায়ী যাদের শপথ গ্রহণের কোনো সুযোগ ছিলো না, তাদের শপথ পড়িয়ে স্পিকার সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন। শপথ নেয়া এসব সদস্যদের দ্বারা নির্বাচিত সংসদ নেতাকে সরকার গঠনের আমন্ত্রণ জানালে মাননীয় রাষ্ট্রপতি দ্বারাও সংবিধানের বিচ্যুতি ঘটবে বলে স্পষ্ট বলা যায়।’

তিনি বলেন, ‘এ সব ঘটেছে স্রেফ ঘটনার জন্য দ্রুত ক্ষমতা সংহত করার জন্য।’

তিনি এ সময়, হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘ক্ষমতার মোহে রাষ্ট্রীয় সংবিধানকে অবজ্ঞা করার এমন নষ্ট দৃষ্টান্ত স্থাপনের জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকেই একদিন অভিযুক্ত হতে হবে। আমরা এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের সচেতন থাকার আহ্বান জানাচ্ছি।’

তিনি বলেন, ‘৫ জানুয়ারির তথাকথিত নির্বাচনে নির্বাচিত কথিত কোনো ব্যক্তি সংবিধানের বিধান অনুযায়ী আগামী ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত কার্যভার গ্রহণ করতে পারেন না। কিন্তু শপথ গ্রহণের মাধ্যমে তারা কার্যভার গ্রহণ করেছেন। যা সংবিধানের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। যারা সংবিধানের এমন বিচ্যুতি ঘটালেন, তাদের মনে রাখা সঙ্গত যে, পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে তারাই সংবিধানের বিচ্যুতি ঘটানোর জন্য বিরাট শাস্তির বিধান করেছেন।‘

পরিশেষে তিনি বলেন, ‘জনগণের ভোটাধিকার হরণ করে, ভোটবিহীন কারচুপির মাধ্যমে যারা সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিয়েছেন, তারা শুধু পবিত্র সংসদ ও গণতন্ত্রকেই কলঙ্কিত করেনি, বরং জনগণের সঙ্গেও চরম বিশ্বাসঘাতকতা করছেন। জনগণ এই প্রহসনের জবাব দেবে, তার সময় ঘনিয়ে আসছে।’

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ