Home / লাইফস্টাইল / প্রেম সম্পর্কে ১৪টি বিচিত্র মজার তথ্য!

প্রেম সম্পর্কে ১৪টি বিচিত্র মজার তথ্য!

ভাবছেন প্রেম-ভালোবাসা নিয়ে নতুন করে আবার কী জানবেন,সবই তো সবার জানা! ধারণাটা কিন্তু একেবারেই ভুল। প্রেম সম্পর্কে বেশির ভাগ তথ্যই এখনো অজানা। প্রেম-ভালোবাসা নিয়ে মানুষের আগ্রহের শেষ নেই। প্রেমের অনুভূতি গুলো কেমন, কেনই বা মানুষ ভালোবাসে, প্রেমে পড়ার সময় মানুষ কী দেখে ইত্যাদি নানা রকমের প্রশ্ন জাগে অনেকের মনেই। ভালোবাসা নিয়ে মানুষের এই আগ্রহ চিরন্তন একটি বিষয়।

চিরচেনা ভালোবাসার এই অনুভূতি সম্পর্কে অনেক কিছুই আমাদের জানা। আবার এমন অনেক বিষয় আছে যেগুলো আমরা আজও জানি না। বিজ্ঞানীরা তাই রীতিমত গবেষণা করে প্রেম সম্পর্কে প্রতিনিয়ত আবিষ্কার করে চলেছেন মজার সব বিচিত্র তথ্য। তেমনই কিছু মজার তথ্য নিয়ে এই আয়োজন।

প্রথম দেখাতেই প্রেম বলে কিছু নেই! প্রথম দেখাতে যে আবেগ সৃষ্টি হয় মনে সেটা প্রকৃতপক্ষে প্রেম না। সেটা সৌন্দর্যের প্রতি মানুষের সহজাত শারীরিক আকর্ষন।
অনেকেই মনে করে নারীরা প্রেমের ক্ষেত্রে পুরুষের শারীরিক সৌন্দর্য দেখেন না। কিন্তু একথা সম্পূর্ণ ভুল। নারীরাও পুরুষদের মতই বাহ্যিক সৌন্দর্য দেখে আকর্ষনবোধ করে এবং দীর্ঘমেয়াদী সম্পর্কে যাওয়ার ক্ষেত্রে তারা একজন সুন্দর সুপুরুষ আকাঙ্খা করে।
প্রেমে পড়ার অনুভূতিকে কোকেইন নেয়ার পর মস্তিষ্কের অনুভূতির সাথে তুলনা করা হয়।
জীবনে একবারই প্রেমে পরেছেন বললেও প্রায় সব মানুষই জীবনে একাধিকবার প্রেমে পড়ে থাকেন।
প্রায় ৪০% পুরুষই প্রেমিকার সাথে প্রথম বার দেখা করার সময় মনে মনে একদম আত্মবিশ্বাসী থাকে না।
গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে স্কুল,কলেজ, ফাস্ট ফুড, কফিশপ ও শপিং মল গুলো ফ্লার্টিং এর জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় যায়গা কারণ এসব স্থানে সাধারণত মানুষের মন ভালো থাকে ও মন খুলে কথা বলার মত মানসিকতা থাকে।
পুরোনো প্রেমিক/প্রেমিকাকে হিংসা করানোর চেষ্টা করার অর্থ হলো পুরানো প্রেমের জন্য এখনো আপনার মনে স্থান আছে।

আমাদের দেশে বলা হয়ে থাকে যে নারীরা সম্পর্ক ভাঙ্গে বেশি। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে এই কাজটি পুরুষরাই বেশি করে। কারণ সম্পর্কে যাওয়ার আগে তারা এর ভবিষ্যত পরিণতি চিন্তা না করেই এগিয়ে যায় এবং পরবর্তিতে সামাল দিতে না পেরে সম্পর্ক ভেঙ্গে ফেলে।
সঙ্গী প্রেমের সম্পর্ক ভাঙতে চাইছে সেটা বোঝা যাবে যদি সে ইচ্ছে করে গায়ে পড়ে ঝগড়া করে, আগের মত দেখা করার আগ্রহ না দেখায় কিংবা কথায় কথায় বিরক্তি প্রকাশ করে।
প্রায় ৪৮% অনলাইন প্রেমিক/প্রেমিকারা জানিয়েছে যে তাদের ব্রেকআপটা হয়েছে ইমেইলের মাধ্যমে।
গবেষণায় জানা গিয়েছে যে মাত্র ৩বার ডেট করেই পুরুষরা বুঝে ফেলে যে তারা প্রেমে পড়েছে। কিন্তু নারীরা এক্ষেত্রে প্রায় ১৪বার বা তারও বেশি ডেট করার পর বুঝতে পারে প্রেমে পড়ার বিষয়টি।
সাধারণত ৩ থেকে ৫ মাসের মধ্যেই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ব্রেকআপ হয়।
গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে সব পুরুষ প্রতিদিন সকালে স্ত্রীকে চুম্বন করে তারা অন্যদের চাইতে প্রায় ৫ বছর বেশি বাঁচে।
হতাশা, ভয় ও মানসিক চাপ দূর করার জন্য ভালোবাসার মানুষটি হাত শক্ত করে ধরাই যথেষ্ট। ভালোবাসার মানুষদের হাত ধরার সঙ্গে সঙ্গে অনেকটাই শান্ত হয়ে যায় মন।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ