Home / আন্তর্জাতিক / জাতিসংঘে ড্রোন হামলার বিরুদ্ধে প্রস্তাব তুলতে যাচ্ছে পাকিস্তান

জাতিসংঘে ড্রোন হামলার বিরুদ্ধে প্রস্তাব তুলতে যাচ্ছে পাকিস্তান

জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশনের আসন্ন বৈঠকে সন্ত্রাসী ড্রোন হামলার বিরুদ্ধে একটি প্রস্তাব তুলতে যাচ্ছে পাকিস্তান। সুইজার‌্যলান্ডের জেনেভায় এ বৈঠকে হবে। সম্প্রতি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে এ ধরনের একটি প্রস্তাব পাস হয়েছে যাতে বলা হয়- ড্রোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে আন্তর্জাতিক আইন মেনে চলতে হবে। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে এ প্রস্তাব সর্বসম্মতিক্রমে পাস হয়। এতে সব দেশের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে যে, আন্তর্জাতিক আইন ও বাধ্যবাধকতার আওতায় ড্রোন ব্যবহার করতে হবে। এতে বলা হয়, সন্ত্রাসবিরোধী কোনো পদক্ষেপ নেয়ার সময় অবশ্যই আন্তর্জাতিক আইন মেনে তা করতে হবে।
এদিকে, পাকিস্তানের সাবেক সামরিক শাসক পারভেজ মোশাররফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলার ব্যাপারে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন তার আইনজীবীরা। এসব আইনজীবী বলেছেন, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে মোশাররফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ আনা হয়েছে এবং একটি ‘লোকদেখানো’ বিচারের আয়োজন করা হয়েছে।
এর আগে, গত নভেম্বর মাসে জাতিসংঘে নিযুক্ত পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত তার দেশে মার্কিন ড্রোন হামলার তীব্র নিন্দা করে বক্তব্য রেখেছিলেন। এ ধরনের হামলাকে তিনি আন্তর্জাতিক আইনের পরিপন্থী বলেও উল্লেখ করেছিলেন। সে সময় তিনি আরো বলেছিলেন, মার্কিন ড্রোন হামলার কারণে পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা ও সংহতি ঝুঁকির মুখে পড়েছে। অন্যদিকে, জেনারেল মোশাররফ ১৯৯৯ সালে এক রক্তপাতহীন অভ্যুত্থানের মাধ্যমে নওয়াজ শরীফের নেতৃত্বাধীন সরকারকে উৎখাত করেছিলেন। তার আইনজীবীরা এখন বলছেন, প্রধানমন্ত্রী শরীফ এখন মোশাররফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ এনে ওই অভ্যুত্থানের প্রতিশোধ নিতে চান।
আগামী ২৪ ডিসেম্বর এ মামলায় ৭০ বছর বয়সী মোশাররফকে আদালতে তোলা হবে। পাকিস্তানের ইতিহাসে এই প্রথম কোনো সাবেক সামরিক শাসককে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলায় আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হচ্ছে। মোশাররফের আইনজীবী ব্যারিস্টার স্টিভেন কে লন্ডনে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, সাবেক সেনাশাসকের বিচারের জন্য যে প্যানেল গঠন করা হয়েছে তাদের সবাই মোশাররফ বিদ্বেষী বিচারক। কাজেই এটি যে একটি লোকদেখানো বিচার তাতে কোনো সন্দেহ নেই। সূত্র : ওয়েবসাইট।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ