Home / আন্তর্জাতিক / ‘ডায়ানা হত্যার বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ নেই’

‘ডায়ানা হত্যার বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ নেই’

Dianaব্রিটিশ পুলিশ গতকাল জানিয়েছে, তারা ১৯৯৭ সালে ডায়ানার মৃত্যুর ব্যাপারে নতুন তথ্য যাচাই-বাছাইয়ের কাজ শেষ করেছে। তবে এক্ষেত্রে প্রিন্সেস ডায়ানা ও দোদি আল ফায়েদকে হত্যার ‘বিশ্বাসযোগ্য কোনো প্রমাণ’ খুঁজে পায়নি তারা। স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড পুলিশ হেডকোয়ার্টার গত আগস্টে জানায়, তারা প্রিন্সেস ডায়ানা ও তার ছেলে বন্ধু দোদি আল ফায়েদের মৃত্যুর ব্যাপারে সম্প্রতি প্রাপ্ত তথ্যের বিশ্বাসযোগ্যতা যাচাই করছে। এতে অভিযোগ করা হয়, ডায়ানাকে একজন ব্রিটিশ সামরিক ব্যক্তি হত্যা করেছে।
সোমবার পুলিশ বাহিনীর এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘মেট্রোপলিটন পুলিশ সার্ভিস এ ধরনের তথ্যের সম্ভাব্যতা যাচাই করে দেখছে।’ এ তথ্য যাচাইয়ের কাজ এখন শেষ। এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেওয়া হবে। এর আগে ২০০৮ সালে এক তথ্য প্রমাণে বলা হয়েছিল, বেআইনিভাবে তাদেরকে হত্যা করা হয়। এতে বলা হয়েছে, চালকের মাত্রাতিরিক্ত অবহেলার কারণে প্যারিসের টানেলে গাড়িটি দুর্ঘটনায় পতিত হয়। উল্লেখ্য, ডায়ানা ও ফায়েদ ১৯৯৭ সালের ৩১ আগস্ট প্যারিসের একটি ভূগর্ভস্থ সড়কে মর্মান্তিক গাড়ি দুর্ঘটনায় নিহত হন। সেই সময় প্রিন্স উইলিয়াম ও প্রিন্স হ্যারির মা প্রিন্সেস ডায়ানায় বয়স ছিল ৩৬ বছর। আর দোদি আল ফায়েদের বয়স ছিল ৪২ বছর। এ সময় তাদের চালক হেনরি পলও নিহত হন। প্যারিসের রিটজ হোটেল থেকে ডায়ানা ও দোদি বের হলে পাপারাজ্জিরা মোটরসাইকেলে করে তাদের পিছু নেয়। এর কিছুক্ষণ পরই প্যারিসের একটি টানেলে তারা মর্মান্তিক দুর্ঘটনার শিকার হন। তবে দোদির দেহরক্ষী ট্রেভর রিজ জোন্স এ দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে যান। বিবিসি।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ