Home / আন্তর্জাতিক / দিল্লিতে কেউ সরকার গঠন করতে পারছে না

দিল্লিতে কেউ সরকার গঠন করতে পারছে না

আগামী বছর ভারতে অনুষ্ঠেয় লোকসভা নির্বাচনের আগে চার রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে ভরাডুবি ঘটেছে ক্ষমতাসীন কংগ্রেসের। নিজেদের দখলে থাকা রাজস্থান ও দিল্লিতে ভরাডুবি ঘটেছে ক্ষমতাসীন দলটির। অন্যদিকে ছত্তিশগড় ও মধ্যপ্রদেশ দুর্গ ধরে রেখেছে বিজেপি। চার রাজ্যে হারলেও মিজোরামের নির্বাচনে ভোট গণনায় এগিয়ে রয়েছে কংগ্রেস। অপরদিকে দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনে ৭০ আসনের মধ্যে ২৮টি আসন পেয়ে বিস্ময়কর ফল লাভ করেছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি (এএপি)। সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন পাওয়া বিজেপিকে এএপি সমর্থন দেবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে, তাই দিল্লিতে সরকার গঠন নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে।
বিধানসভা নির্বাচনে আশাতীত ফল হয়েছে দিল্লিতে। সেখানে বিধানসভার ৭০ আসনের মধ্যে ২৮টি পেয়েছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি (এএপি)। বিজেপি জয়ী হয়েছে ৩২টিতে ও কংগ্রেস ৮টিতে। স্বতন্ত্র থেকে জিতেছেন দু’জন। সরকার গঠন করতে প্রয়োজন ৩৬ আসন। স্বতন্ত্র বিধায়কদের নিয়ে বিজেপির সরকার গড়ার সম্ভাবনাও নেই। এএপি বিজেপিকে সমর্থন দেবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে। তাই দিল্লিতে কেউ সরকার গঠন করতে পারছে না। এএপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সরকার গঠনে তারা কারও সমর্থন নেবে না, কাউকে সমর্থনও দেবে না। তাই বোঝা যাচ্ছে, দিল্লিতে রাষ্ট্রপতির শাসন আসবে। আর তা হলে, আগামী বছর লোকসভা ভোটের সঙ্গে বিধানসভারও ভোট হবে। এএপির প্রধান কেজরিওয়াল স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, প্রয়োজনে পুনরায় নির্বাচনে যাবেন তবুও কংগ্রেস বা বিজেপিকে সমর্থন নয়। কারণ দুই দলের নানা নেতিবাচক দিকগুলোর বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান নিয়ে নির্বাচনে প্রচারণা চালিয়েছে এএপি। তাছাড়া রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, কংগ্রেসের সমর্থন নিয়ে বিজেপির সরকার গঠনের সম্ভাবনাও ক্ষীণ। কারণ দু’দলের বিপরীত মতাদর্শিক অবস্থান এক হয়ে জোট সরকার গঠন করার যুক্তিকে সমর্থন করে না।
লোকসভা নির্বাচনের আগে সেমিফাইনাল হিসেবে বিবেচিত বিধানসভায় কংগ্রেসের ভরাডুবিতে আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছে বিরোধী শিবির। বিশেষ করে দীর্ঘদিন আত্মবিশ্বাসহীনতায় ভোগা বিরোধী দল বিজেপির নেতারা নির্বাচনের ফলে অনেকটাই চাঙ্গা হয়েছেন। কংগ্রেস ভরাডুবির কারণ নিয়ে পর্যালোচনা শুরু করলেও বিজেপি আগামী বছর অনুষ্ঠেয় লোকসভা নির্বাচনে জয়ী হওয়ার ব্যাপারে খুবই আশাবাদী হয়ে উঠেছে। তাদের মতে, বিধানসভা নির্বাচন লোকসভার ফলের ইঙ্গিত বহন করছে। বিজেপি সদ্য জয়ী হওয়া তিনটি রাজ্যে ইতোমধ্যেই সরকার গঠনের তত্পরতা শুরু করেছে। বিজেপি যেখানে রাজস্থানের ১৬২টি আসনে জয়ী হয়েছে সেখানে কংগ্রেস পেয়েছে ২১টি আসন। অন্যদিকে ছত্তিশগড় ও মধ্যপ্রদেশে নিজেদের দূর্গ অক্ষত রেখেছে বিজেপি। মধ্যপ্রদেশে বিজেপি পেয়েছে ১৬৫ আসন ও কংগ্রেস পেয়েছে ৫৮ আসন। তবে ব্যবধান কম হয়েছে ছত্তিশগড়ে। সেখানে বিজেপি পেয়েছে ৪৯ আসন, অপরদিকে কংগ্রেস পেয়েছে ৩৯ আসন। ভারতের চার রাজ্যের নির্বাচনে ভরাডুবি হলেও মিজোরামে মুখরক্ষা হয়েছে শাসক দল কংগ্রেসের। গতকাল এ রাজ্যের ফল ঘোষণা করা হয়। এদিন বেলা সাড়ে ১১টায় মিজোরামের মুখ্যমন্ত্রী লাল থানহাওয়ালা সেরচিপ কেন্দ্র থেকে জিতলেন। থানওয়ালা জিতলেন ৪৯৮৫ ভোটে। দুপুর নাগাদ ওই রাজ্যে বড় জয়ের দিকে এগোচ্ছে কংগ্রেস। ৪০টি আসনের মধ্যে ২০টি আসনের ভোট গণনার প্রাথমিক ফল আসে। ২০টি আসনের মধ্যে চারটি আসনের ফল ঘোষিত হয়েছে। চারটিতেই জয়ী, ১২টি আসনে এগিয়ে কংগ্রেস। চারটি আসনে এগিয়ে মিজোরাম ফ্রন্ট। ভোটের ফল মেনে নিয়েছে কংগ্রেস।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ