Home / আন্তর্জাতিক / এক লাখ পুরুষের সেক্সযাত্রীর ভিসা নাকচ সৌদি আরবের
এক লাখ পুরুষের সেক্সযাত্রীর ভিসা নাকচ সৌদি আরবের

এক লাখ পুরুষের সেক্সযাত্রীর ভিসা নাকচ সৌদি আরবের

কিছু দিন আগে পোল্যান্ডের তরুণী আনিয়া লিওয়াসকা ঘোষণা করেছিলেন তিনি এক লাখ পুরুষের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করবেন। ৬৩৪ জন পুরুষের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করার পর তিনি নিজেই রণে ভঙ্গ দেন। ফেসবুকে তার ওই ঘোষণার নেতিবাচক প্রচারণার কারণে তিনি সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে বলে জানান।

কিছুদিন পর আবার তিনি পূর্বের সিদ্ধান্ত মোতাবে এক লাখ পুরুষের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করার পথে অগ্রসর হন। এ জন্য তিনি সারা পৃথিবী ভ্রমণ করার পরিকল্পনাও করেন। ওই পরিকল্পনার তালিকায় তিনি আরব দেশগুলোকেই প্রাধান্য দেন।

আনিয়া তার ফেসবুক বার্তায় জানান, ‘আমি এ মাসেই যৌন সম্পর্কের বিশ্বভ্রমণের পরিকল্পনা চূড়ান্ত করছি। অক্টোবর মাসে বিভিন্ন দেশে যাওয়া শুরু করব। আমার পছন্দের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে আরব দেশ। আশা করি, আরব দেশগুলো আমাকে সে দেশে প্রবেশ করে পুরুষদের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার অনুমতি দেবে।’

এর আগে মিশরীয় ঐতিহ্য এবং দেশটির পুরুষদের বীরত্বের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে আনিয়া যৌন সম্পর্ক করতে মিশরে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু মিশরীয় বিভিন্ন সংগঠন এর তীব্র বিরোধিতা করে। আনিয়া যাতে মিশরে ঢুকতে না পারে সে জন্য ফেসবুকে ব্যাপক প্রচারণা চালায়। বিশ্ব মিডিয়ায় হৈচৈ পড়ে যায়। ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে আনিয়া মিশর সফর বাতিল করেন।

এরপর তিনি ইরানে যাওয়ার প্রস্তুতি নেন। কিন্তু ইরান দূতাবাস তাকে ভিসা দিতে অনীহা প্রকাশ করে। ফলে ইরান সফরও বাতিল করেন।

এবার আনিয়া সৌদি আরবে যাওয়ার জন্য ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে স্থানীয় সৌদি দূতবাসে পাসপোর্ট জমা দেন। কিন্তু সৌদি দূতাবাসও তাকে ভিসা দিতে অস্বীকৃতি জানায়।

উল্লেখ্য, আনিয়া শুরুতেই জানিয়েছেন তার যৌন সম্পর্কের মিশনে প্রতি পুরুষের সঙ্গে গড়ে ২০ মিনিট করে ব্যয় করবেন। তিনি জানান, ‘আমি ৩টি জিনিসকে ভালবাসি। আর তাহলো- আনন্দ, পুরুষ আর যৌনতা।’

সৌদি দূতাবাস কর্তৃক তার ভিসার আবেদন প্রত্যাখ্যাত হওয়ার পর আনিয়া বলেন, ‘আরব দেশগুলো আমাকে নিরুৎসাহিত করলেও আমি থেমে থাকব না। আমি আমার সিদ্ধান্ত নিয়ে সামনে এগিয়ে যাবোই।’

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ