Home / খেলা / বিজয় দিবস টি-টোয়েন্টি শুরু হচ্ছে রোববার

বিজয় দিবস টি-টোয়েন্টি শুরু হচ্ছে রোববার

২২ ডিসেম্বর থেকে শুরু হতে যাচ্ছে বহুল আলোচিত চার দলীয় টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট- বিজয় দিবস টি-টোয়েন্টি। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

দেশের শীর্ষ ৫৬ জন খেলোয়াড়দের চার দলে ভাগ করে অনুষ্ঠিত হবে এই টুর্নামেন্ট। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে নির্বাচকদের তৈরি করা সেই চার দলের খেলোয়াড়দের নাম পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। চার দলের অধিনায়কত্বের দায়িত্বে থাকছেন দেশের বর্তমান ও সাবেক তিন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা, সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম এবং সাবেক সহঅধিনায়ক তামিম ইকবাল।

এর মধ্যে মাশরাফি হলুদ, সাকিব নীল, তামিম সবুজ ও মুশফিক লাল দলের নেতৃত্ব দেবেন।

চার দলে মোটামুটি জাতীয় দলে গত কয়েক মাসের মধ্যে খেলা প্রায় সব ক্রিকেটারই আছেন। চমক হিসেবে এই টুর্নামেন্টে অনেকদিন পর ডাক পেয়েছেন আফতাব আহমেদ, অলক কাপালি, মেহরাব হোসেন, নাফীস ইকবাল, তাপস বৈশ্য এবং শাহরিয়ার নাফীস। এই ক’জন সিনিয়র যেমন সুযোগ পেয়েছেন টি-টোয়েন্টি খেলাটার ভেতর দিয়ে নিজেদের আরেকবার সর্বোচ্চ পর্যায়ে তুলে ধরার। তেমনই একেবারে তরুণ মিজানুর রহমান, তৈয়াবুর রহমান, নুরুল হাসান, তাইজুল ইসলাম, আব্দুল মজিদ, মোহাম্মদ শহীদ, দেলোয়ার হোসেন, মেহেদী মারুফরা সুযোগ পাচ্ছেন বড়দের এই লড়াইয়ে অংশ নিয়ে নিজেদের প্রতিষ্ঠার পথে একটু এগিয়ে যাওয়ার।

মাশরাফির সবুজ দলে জাতীয় দলের তিন ওপেনার শাহরিয়ার নাফীস, জুনায়েদ সিদ্দিকী, জহুরুল ইসলাম ছাড়াও তরুণ সেনসেশন মুমিনুল হক এবং বাহাতি স্পিনার ইলিয়াস সানি আছেন। সাকিবের নীল দলে জাতীয় দলের ওপেনার মেহরাব হোসেন, এনামুল হক বিজয় ছাড়াও তরুণ অলরাউন্ডার সোহাগ গাজী ও বর্তমানের অন্যতম সেরা পেসার রুবেল হোসেন থাকছেন।

তামিমের সবুজ দলে ইমরুল কায়েস, নাঈম ইসলাম, মার্শাল আইয়ুবের পাশাপাশি তরুণ পেসার আল আমিন আছেন। আর মুশফিকের লাল দল অনেকটাই বর্তমান জাতীয় দলের ক্রিকেটারে বোঝাই। সামসুর রহমান শুভ, সৌম্য সরকার, মাহমুদউল্লাহ, আব্দুর রাজ্জাক, ফরহাদ রেজা, জিয়াউর রহমান, সোহরাওয়ার্দী শুভরা আছেন মুশফিকের সঙ্গে।

বিজ্ঞপ্তিতে চার দলের নাম লাল, সবুজ, হলুদ ও নীল বলে জানানো হয়েছে। তবে আলোচনা আছে যে, চারটি ক্লাব আসলে এই চার দলের দায়িত্ব নেবে। এর মধ্যে আবাহনী, মোহামেডান ও প্রাইম ব্যাংক তিনটি দলের দায়িত্ব নিচ্ছে বলে গুঞ্জন আছে। বাকী দলটি গতকাল পর্যন্ত নিশ্চিত করেনি কেউ। শুক্রবার আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে এসবই নিশ্চিত করার কথা।

২২ ডিসেম্বর শুরু হওয়া টুর্নামেন্টে চারটি দল পরস্পরের বিপক্ষে দু’বার করে খেলবে; ফাইনাল হবে ৩১ ডিসেম্বর। টুর্নামেন্টের প্রথম চারটি ম্যাচ হবে সিলেট বিভাগীয় স্টেডিয়ামে। এরপর মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ২৮ ও ২৯ ডিসেম্বর আরও চারটি ম্যাচ খেলবে তারা।

সবগুলো খেলা টেলিভিশনে সরাসরি প্রচার করার জন্য বিসিবি চেষ্টা করে যাচ্ছে। বাংলাদেশ টেলিভিশন এ ক্ষেত্রে বড় বিবেচনায় আছে। পাশাপাশি একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলের কথাও শোনা যাচ্ছে। তারাও নাকি আগ্রহী এই সমপ্রচারে।

হলুদ দল

মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), জুনায়েদ সিদ্দিকী, জহুরুল ইসলাম, মিজানুর রহমান, মুমিনুল হক, শাহরিয়ার নাফীস, রকিবুল হাসান, তৈয়াবুর রহমান, ইলিয়াস সানি, সাকলায়েন সজীব, দেওয়ান সাব্বির, সাজিদুল ইসলাম, আলাউদ্দিন বাবু, নুরুল হাসান।

নীল দল

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), এনামুল হক বিজয়, সৈকত আলী, লিটন কুমার দাস, সাব্বির রহমান রুম্মন, মেহরাব হোসেন, অলক কাপালি, সোহাগ গাজী, তাইজুল ইসলাম, রুবেল হোসেন, শাহাদাত হোসেন, তাপস বৈশ্য, রবিউল ইসলাম, মোহাম্মদ শরীফ।

সবুজ দল

তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), ইমরুল কায়েস, আব্দুল মজিদ, নাঈম ইসলাম, মার্শাল আইয়ুব, রনি তালুকদার, জুবায়ের আহমেদ, আরফাত সানি, আল-আমিন হোসেন, মোহাম্মদ শহীদ, দেলোয়ার হোসেন, মুক্তার আলী, মোহাম্মদ মিথুন।

লাল দল

মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), সামসুর রহমান শুভ, সৌম্য সরকার, নাফীস ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ, আফতাব আহমেদ, আব্দুর রাজ্জাক, নাজমুল হোসেন মিলন, ফরহাদ রেজা, শুভাশীষ রায়, জিয়াউর রহমান, সোহরাওয়ার্দী শুভ, মেহেদী মারুফ।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ