Home / খেলা / হ্যাটট্রিকেই জবাব দিলেন নেইমার

হ্যাটট্রিকেই জবাব দিলেন নেইমার

রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে গ্যারেথ বেল গোল করছেন, হ্যাটট্রিক পেয়েছেন। তো নেইমার কবে পাবেন? গত কিছুদিন ধরেই এমন ধরনের কথাবার্তা শুনতে হচ্ছিল ব্রাজিলিয়ান তারকাকে। জবাবটা দ্রুতই দেওয়া দরকার ছিল, আর দিলেনও নেইমার। বুধবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বার্সেলোনা ৬-১ গোলে উড়িয়ে দেয় সেলটিককে। তাতেই ছিল নেইমারের হ্যাটট্রিক। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রথম গোলের উত্সবটা হ্যাটট্রিক দিয়েই উদযাপন করলেন ব্রাজিলিয়ান সেনসেশন। শুধু চ্যাম্পিয়ন্স লিগই নয়, বার্সার জার্সি গায়েও এটা নেইমারের প্রথম হ্যাটট্রিক। বার্সার হয়ে বাকি তিন গোল করে যান জেরার্ড পিকে, পেদ্রো রদ্রিগুয়েজ ও ক্রিশ্চিয়ান তেল্লো। এ জয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে গেল বার্সা।
এর আগে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পাঁচ ম্যাচ খেলেও গোল পাননি নেইমার। গোল পেয়েছেন লা লিগায়, স্প্যানিশ সুপার কাপেও। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গোলের খাতাটা খুলতেই পারছিলেন না। ইউরোপের ক্লাবসেরা এ টুর্নামেন্টে নেইমার কেন সফল হচ্ছেন না তা নিয়ে কথাও উঠতে শুরু করেছিল। সব কথাই বন্ধ করলেন নেইমার গোলের সঙ্গে হ্যাটট্রিক তুলে নিয়ে ম্যাচটিকে স্মরণীয় করে রেখে। লিওনেল মেসির সঙ্গে যেমন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো তেমনি এ মৌসুমে নেইমারের সঙ্গে তুলনা টানা হচ্ছে বেলের। সেই লড়াইয়ে হ্যাটট্রিক করে এগিয়ে গিয়েছিলেন বেল। এবার নেইমার হ্যাটট্রিক করে চলে এলেন একই সমতায়। ম্যাচ শেষে বিনয়ী নেইমারের কথা-‘আমার ওপর কোনো চাপ ছিল না। আমার কাজই তো গোল করা, সেটাই করেছি আর দল জিতেছে। ব্যস, আর কিছু চাওয়ার নেই।’ যোগ করেন-‘সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল, আমরা টানা দুটি ম্যাচ হেরে সমালোচনার মুখে পড়েছিলাম। আশা করি এ জয় আমাদের লা লিগায় ঘুরে দাঁড়ানোর আত্মবিশ্বাস জোগাবে।’ বার্সার হয়ে এ মৌসুমে নেইমারের গোলসংখ্যা এখন সাত।
ন্যু ক্যাম্পে শ্রেয়তর প্রতিপক্ষের বিপক্ষে সেলটিক যে তেমন কোনো প্রতিরোধ গড়তে পারবে না সেটা বোঝা গিয়েছিল শুরু থেকেই। সাত মিনিটেই বার্সার প্রথম গোল। অ্যালেক্সিস সানচেজের শট সেলটিক গোলকিপার ফ্রেজার ফরস্টার ফিরিয়ে দিলেও ফিরতি বলে সহজ গোল করেন পিকে। ৩৯ মিনিটে সেলটিক ডিফেন্ডার ইফে অ্যামব্রোসকে ড্রিবলিংয়ের জাদুতে পরাস্ত করে নেইমার বল বাড়িয়ে দেন পেদ্রোকে। গোল করতে ভুল করেননি তিনি। বিরতির ঠিক আগে নেইমার তার প্রথম গোল করেন, মার্টিন মনতোয়ার পাস থেকে। বিরতির পর ৪৮ মিনিটেই জাভি হার্নান্দেজের সঙ্গে বল দেওয়া-নেওয়া করে নেইমারের দ্বিতীয় গোল। ৫৮ মিনিটে সেই অ্যামব্রোসকে আরেকবার ঘোল খাইয়ে নেইমার তার হ্যাটট্রিক তুলে নেন।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ