Home / খেলা / সংক্ষিপ্ত তালিকায় মেসি রোনালদো ও রিবেরি

সংক্ষিপ্ত তালিকায় মেসি রোনালদো ও রিবেরি

এবার ফিফা বর্ষসেরা হওয়ার চূড়ান্ত লড়াইয়ে অবতীর্ণ হলেন বিশ্ব ফুটবলের বর্তমান সময়ের ৩ সেরা তারকা লিওনেল মেসি, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো এবং ফ্রাঙ্ক রিবেরি। ফিফা ব্যালন ডি’অর-এর জন্য প্রাথমিকভাবে মনোনীত ২৩ ফুটবলারদের মধ্য থেকে এই তিনজন সংক্ষিপ্ত তালিকায় চলে এসেছেন।

২০১৩ সালের সেরা ফুটবলার কে হচ্ছেন তা জানার অপেক্ষা শেষ হবে ১৩ জানুয়ারি। আর্জেন্টিনা ও বার্সেলোনার ফুটবল জাদুকর হিসেবে চিহ্নিত লিওনেল মেসি টানা চারবারের বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হলেও এবার এই খেতাব জিততে তাকে প্রতিদ্বন্দ্বী পর্তুগিজ এবং রিয়াল মাদ্রিদ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর প্রবল প্রতিরোধের সম্মুখীন হতে হবে। মেসির জাদুকরী ফুটবল নৈপূণ্য চলতি বছরও বজায় থাকলেও নির্ধারিত সময়ের শেষ প্রান্তে এসে দুর্ভাগ্যজনক ইনজুরির কবলে পড়ে মাঠের বাইরেই থাকতে হচ্ছে তাকে।

অন্যদিকে চির প্রতিদ্বন্দ্বীর অনুপস্থিতিতে রুদ্র মূর্তি ধারণ করেন ২০০৮ সালের ব্যালন ডি’অর জয়ী রিয়াল তারকা রোনালদো। দেশ এবং ক্লাবের হয়ে গোলের পর গোল করে এবারের ব্যালন ডি’অর জেতার অন্যতম দাবীদার হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন করেন। বিশেষ করে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে সুইডেনের বিরুদ্ধে প্লে অফ ম্যাচে বলতে গেলে একাই দলকে জয়ী করে বিশ্বকাপের মূলপর্বে পৌঁছে দেন। আর এই কৃতিত্বই তাকে এবারের বর্ষসেরা ফুটবলারের খেতাব পাইয়ে দিতে পারে বলে ধারণা করছেন ফুটবল ব্যক্তিত্বরা। তবে দলের হয়ে একটা ট্রফিও জিততে পারেননি এই পর্তুগিজ তারকা। এটাই তার মাইনাস পয়েন্ট হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। এক্ষেত্রে মেসি স্প্যানিশ লিগ এবং স্প্যানিশ সুপার কাপ জিতেছেন দলের হয়ে।

ফ্রান্স ও বায়ার্ন মিউনিখ তারকা ফ্রাঙ্ক রিবেরি কাটিয়েছেন স্বপ্নের মতো মৌসুম। এই উইঙ্গার নির্ধারিত সময়সীমায় ৩৭ ম্যাচ খেলে ১৫ গোলের পাশাপাশি ১৫ গোলের উৎস রচে দেন। একইসঙ্গে দলের হয়ে তিনি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, জার্মান লিগ, জার্মান কাপ এবং উয়েফা সুপার কাপ জিতে বর্ষসেরা হওয়ার দৌড়ে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বি হিসেবে আবির্ভূত হন মেসি এবং রোনালদোর সামনে।

ফিফার সদস্য দেশগুলোর পুরুষ দলের কোচ ও অধিনায়ক এবং ফ্রান্সের ফুটবল ম্যাগাজিন কর্তৃক মনোনীত আন্তর্জাতিক মিডিয়া ব্যক্তিদের ভোটে বিজয়ী নির্ধারণ করা হবে। আগামী ১৩ই জানুয়ারি জুরিখে এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে।

১৯৫৬ সালে ইংলিশ ফুটবলার স্ট্যানলি ম্যাথিউস’কে বর্ষসেরা ইউরোপিয়ান ফুটবলার মনোনয়নের মধ্য দিয়ে ফ্রান্সে ব্যালন ডি’অরের যাত্রা শুরু হয়। ২০০৭ সালে থেকে এই খেতাবটি ইউরোপ ছেড়ে বিশ্বসেরাদের প্রদান করা শুরু হয়। এর তিন বছর পর ফিফা এর সাথে যুক্ত হলে পথ চলা শুরু হয় ফিফা ব্যালন ডি’অরের।

এদিকে মেয়েদের সংক্ষিপ্ত তালিকায় আছেন জার্মানির নাদিনে অ্যাঞ্জেরার, ব্রাজিলের মার্থা এবং যুক্তরাষ্টের অ্যাবি ওয়েম্ব্যাক। একইসাথে কোচদের তালিকায় স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন,জুপ হেইঙ্কস এবং জার্গন ক্লপের নাম রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে ফিফা।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ