Home / নির্বাচন / আওয়ামীলীগ প্রার্থী অপুর পক্ষে প্রশাসনে প্রভাব খাটানোর অভিযোগ

আওয়ামীলীগ প্রার্থী অপুর পক্ষে প্রশাসনে প্রভাব খাটানোর অভিযোগ

আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেলের বিরুদ্ধে ঝিনাইদহ-২ আসনে প্রশাসনের উপর প্রভাব খাটানোর অভিযোগ উঠেছে।

তিনি যে কোন মূল্যে আওয়ামীলীগ প্রার্থী শফিকুল ইসলাম অপুকে জয়ী করতে প্রশাসনকে চাপ দেওয়ার পর থেকে এক বিব্রতকর অবস্থা তৈরি হয়েছে। পুলিশ প্রশাসন স্বতন্ত্র প্রার্ধীর বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে তার কর্মীদেরকে হয়রানি করছে।

জানা গেছে, আওয়ামীলীগ প্রার্থী শফিকুল ইসলাম অপু এলাকায় নানা বিতর্কিত কর্মকান্ডের কারণে এখন পর্যন্ত মাঠেই নামতে পারছেন না। স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরাও তার বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে। এমনকি সাধারণ মানুষরাও তাকে অপছন্দ করে। এ অবস্থায় অভিযোগ উঠেছে, যেকোন মূল্যে তাকে বিজয়ী করতে প্রশাসনকে নির্দেশন দিয়েছেন বি এম মোজাম্মেল। তিনি সরাসরি স্থানীয় প্রশাসনের উপর তদারকি করছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে।

আওয়ামীলীগের এই কেন্দ্রীয় নেতার এমন নির্দেশের পর আওয়ামীলীগ দলীয় সংসদ সদস্য প্রার্থী অপু স্থানীয় চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের তার পক্ষে মাঠে নমিয়েছেন। এরা মাঠে নেমেই অপুর পক্ষ নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর কর্মী-সমর্থক এবং সাধারণ ভোটারদের নানাভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন এবং হুমকি প্রদর্শন করছে। তাদের এসব কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিলেও প্রশাসন এসব সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহজীব আলম সিদ্দিকী সমি এর সমর্থকদের নানাভাবে হয়রানি করছে।

অভিযোগে প্রকাশ, স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীদের পাশাপাশি স্থানীয় পুলিশ প্রাশসনও ভয় ভীতি দেখাচ্ছে। এমনকি অপুর বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া স্থানীয় আওয়ামীলীগের কর্ম-সমর্থকদের মধ্যে যারা স্বতন্ত্র প্রার্থী সমি’র পক্ষ নিয়েছেন তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পুলিশ তল্লাশি করছে। তাদেরকে গ্রেফতারের ভয়ও দেখানো হচ্ছে। এসব বিষয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচন কমিশনে আনুষ্ঠানিক ভাবে অভিযোগও করেছেন।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামানের সঙ্গে তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমাদের উপর কোন প্রভাব বিস্তার করা হয়নি। আমরা রুটিন মাপিক কাজ করছি।

আর ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল চেৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমরা কোন প্রার্থীর নেতাকর্মীকে আটক করছি না। নির্বাচনকে সামনে রেখে চিহ্নিত অপরাধীদর গ্রেফতার করা হচ্ছে দাবি করে ওসি বলেন, কোন নিরপরাধ ব্যক্তিকে হয়রানি করা হচ্ছে না।

অন্যদিকে এসব অভিযোগের ব্যাপারে বি এম মোজাম্মেল হকের সঙ্গে গতকাল যোগাযোগ করলে তিনি এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ঝিনাইদহ সফরকালে স্থানীয় প্রশাসনের কারো সঙ্গে এসব বিষয়ে তার কোন কথা হয়নি। তিনি বলেন, এসব অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ