Home / জেলার খবর / নীলফামারীতে জামায়াত-শিবিরের সহিংসতায় নিহতদের জানাজায় কাঁদলেন নূর

নীলফামারীতে জামায়াত-শিবিরের সহিংসতায় নিহতদের জানাজায় কাঁদলেন নূর

জানাজায় কাঁদলেন সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূর। কেঁদে কেঁদে বললেন, ‘আমাকে বাঁচাতে যারা জীবন দিয়েছে তাদের পরিবারের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। এ কৃতজ্ঞতা আমার জীবনে স্বরণীয় হয়ে থাকবে।’ নীলফামারীতে জামায়াত-শিবিরের হামলায় নিহত আওয়ামী লীগের চার নেতাকর্মীর একই সঙ্গে অনুষ্ঠিত জানাজায় অংশ নিতে গিয়ে তিনি এভাবে কান্নায় ভেঙে পড়েন। রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শহরের চৌরঙ্গী মোড়ে স্বাধীনতা স্মৃতি অল্লান চত্ত্বরে ওই জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা পরিষদের চেযারম্যান জয়নাল আবেদীন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মমতাজুল হকসহ দলীয় নেতা-কর্মী ও স্থানীয় সাধারণ মানুষ।

এরপর টুপামারী স্কুল মাঠে দ্বিতীয় দফা জানাজা শেষে রাতেই পারিবারিক কবরস্থানে দাফনের উদ্দেশে নিয়ে যাওয়া হয় তাদেরকে। নিহতরা হলেন- টুপামারী ইউনিয়ন কৃষক লীগের সভাপতি খোরশেদ আলম চৌধুরী (৫০), আওয়ামী লীগ নেতা লেবু মিয়া (৪০), ওয়ার্ড যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফরহাদ হোসেন (২৫) ও তার ভাই যুবলীগ কর্মী মুরাদ হোসেন (২২)।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মমতাজুল হক জানান, রাতে জানাজাশেষে নিহতের লাশ তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

নিহত ফরহাদ ও মুরাদ দুই সহোদর। টুপামারী ইউনিয়নের নিজপাড়পা গ্রামের ফারুক শাহের ছেলে তারা। খোরশেদ আলম চৌধুরী একই ইউনিয়নের চৌধুরীপাড়ার মৃত কছির উদ্দিনের ছেলে এবং লেবু মিয়া ওই ইউনিয়নের টেংনারগড় গ্রামের মৃত আফতাব উদ্দিনের ছেলে। এর আগে আজ রবিবার বেলা ১১টায় জেলা সদরের লক্ষীচাপ ইউনিয়নের আকাশকুড়ি গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয় আবুবক্কর ছিদ্দিকের।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ