Home / জেলার খবর / নাশকতার ঝুঁকিতে পূর্বাঞ্চলের ২শ’ কিলোমিটার রেলপথ

নাশকতার ঝুঁকিতে পূর্বাঞ্চলের ২শ’ কিলোমিটার রেলপথ

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল চট্টগ্রামের অধীন কুমিল্লা অংশের রেললাইনে ক্রমে বেড়ে চলছে নাশকতা। এ লাইনের প্রায় ২শ’ কিলোমিটার রেলপথের কমপক্ষে ২০টি পয়েন্ট (স্থান) ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করে নাশকতারোধে পালাক্রমে পাহারা দিচ্ছে রেল পুলিশ ও রেলকর্মীরা।

হরতাল-অবরোধে একদিকে রেলপথ নাশকতা সৃষ্টিকারী দুর্বৃত্তদের টার্গেটে এবং অপরদিকে মাদকাসক্ত ও নেশাসক্তদের নেশার টাকা জোগানোর অবলম্বনে পরিণত হয়েছে। দুর্বৃত্তরা রেললাইনের ফিস প্লেট উপড়ে ফেলে ভয়াবহ দুর্ঘটনাসহ প্রাণহানি ও অরাজক পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে।

রেলওয়ে সূত্রে জানা যায়, রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের কুমিল্লা লাকসাম জংশন এলাকার ৩টি লাইনে রেলপথের নিরাপত্তা দেয়া হচ্ছে মাত্র একটি শাটল ট্রেন দিয়ে। ওই শাটল ট্রেনে পুলিশের ১ জন এসআইয়ের নেতৃত্বে ৩ জন আনসার দায়িত্ব পালন করছে। ওই ৩টি লাইনের লাকসাম হতে আখাউড়ার পর্যন্ত ৭০ কিলোমিটার, লাকসাম হতে ফেনী পর্যন্ত ৪৯ কিলোমিটার, লাকসাম হতে নোয়াখালী পর্যন্ত ২৮ কিলোমিটার ও লাকসাম হতে চাঁদপুর পর্যন্ত ৫২ কিলোমিটারসহ লাকসাম রেলওয়ে জংশনের অধীন মোট ১৯৯ কিলোমিটার রেলপথে এ শাটল ট্রেনটি টহলে থাকতে হচ্ছে।

এদিকে এ বিশাল এলাকা জুড়ে রেলপথে নিরাপত্তার জন্য রয়েছে একটি মাত্র শাটল ট্রেন এবং ২০৮ জন রেলকর্মী, যা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। এ কর্মীরা রেললাইন সংস্কারের পাশাপাশি পালাক্রমে রাত দিন রেললাইন পাহারা দিয়ে যাচ্ছেন। রেলওয়ের নিরাপত্তার জন্য আরো শাটল ট্রেন ও লাইন মেরামতের জন্য রেলকর্মী বাড়ানো প্রয়োজন উল্লেখ করে লাকসাম রেলওয়ে থানার ওসি আহসান হাবিব জানান, এ অঞ্চলের ২০টি ঝুঁিকপূর্ণ পয়েন্ট চিহ্নিত করা হয়েছে এবং নাশকতারোধে ৪০ জন আনসার পালাক্রমে রেললাইন পাহারায় নিয়োজিত রয়েছে।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ