Home / রাজনীতি / যৌথ অভিযানে গ্রেফতার ৪৩৮

যৌথ অভিযানে গ্রেফতার ৪৩৮

যৌথ বাহিনী গত ২ দিনে ১৯ জেলায় ৪৩৮ জনকে গ্রেফতার করেছে। তাদের মধ্যে নাশকতা সৃষ্টির অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার অনেক আসামিও রয়েছে। স্থানীয় অফিস, প্রতিনিধি ও সংবাদদাতাদের পাঠানো খবর:
দক্ষিণ চট্টগ্রাম : লোহাগাড়া ও সাতকানিয়া থেকে ৪০ জামায়াত-শিবির কর্মী ও সমর্থককে গ্রেফতার করেছে যৌথ বাহিনী। এ সময় বিস্ফোরক, তিনটি কিরিচ, দুটি রামদা ও গাছ কাটার যন্ত্র উদ্ধার করা হয়।
কুমিল্লা : বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের ৪৮ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে।
রাজশাহী : অভিযান চালিয়ে ২৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
সিরাজগঞ্জ : বেলকুচি উপজেলার ধুকুরিয়াবেড়া ইউনিয়নের কল্যাণপুর, কান্দাপাড়া, মৌবুপুর, সর্বতুলশী ও ট্যাঙ্গাইশাসহ আশপাশের এলাকায় যৌথ বাহিনী অভিযান চালিয়ে জামায়াত-শিবিরের ২০ নেতাকর্মীকে আটক করেছে। বিজিবি মেজর আরিফের নেতৃত্বে গতকাল এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
দিনাজপুর : বিএনপি ও জামায়াতের ১৭ নেতাকর্মীসহ ৩১ জনকে আটক করেছে পুলিশ। গত শনিবার রাত থেকে গতকাল ভোর পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ এদের আটক করে বলে জানান পুলিশ সুপার রুহুল আমিন।
মাধবপুর : হবিগঞ্জের মাধবপুর থানা পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে গত শনিবার রাতে উপজেলার নানা স্থান থেকে বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক ২৫ দাগি অপরাধীকে গ্রেফতার করেছে। এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন ওসি অমল কুমার ধর ও পরিদর্শক (তদন্ত) ইয়াছিনুল হক।
সাতক্ষীরা : যৌথ বাহিনী জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে গত শনিবার রাত থেকে গতকাল সকাল পর্যন্ত ১৩ জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে। অন্যদিকে শিবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম হত্যা মামলার আসামি দুই শিবির ক্যাডারকে গতকাল সন্ধ্যায় গ্রেফতার করে যৌথ বাহিনী। এরা হল সদর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের শাহাজুদ্দিন ও বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের আবু তালেব। সাতক্ষীরা সদর সার্কেল এএসপি মনিরুজ্জামান জানান, গ্রেফতারকৃতরা রবিউল ইসলাম হত্যা মামলার আসামি। উল্লেখ্য, গত ২৬ সেপ্টেম্বর রবিউল ইসলামকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।
মৌলভীবাজার : গত শনিবার রাতে যৌথ বাহিনী বড়লেখা উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে জামায়াতের কর্মপরিষদ সদস্য ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যানসহ ১৮ জনকে আটক করেছে। আটককৃতদের মধ্যে জামায়াত নেতা বড়লেখা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এমাদুল ইসলামও রয়েছেন। মৌলভীবাজার সহকারী পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে নানা ধরনের নাশকতার অভিযোগসহ বিভিন্ন মামলা রয়েছে।
লক্ষ্মীপুর : জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের পাঁচ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে যৌথ বাহিনী। গতকাল ভোরে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা থেকে দু’জন ও রামগতি উপজেলা থেকে তিনজনসহ মোট পাঁচ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়। লক্ষ্মীপুর সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) কাজী হেলাল উদ্দিন জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে নাশকতা সৃষ্টির দায়ে থানায় মামলা রয়েছে।
নাটোর : ১৬ বিএনপি ও জামায়াত কর্মীকে আটক করা হয়েছে। জেলার ধানাইদহ, কয়েন বাজার, বাগাতিপাড়া ও দাইড়পাড়া থেকে এদের আটক করে র্যাব ও পুলিশ।
জয়পুরহাট : জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে গত শনিবার বিএনপি-জামায়াতের ১২ নেতাকর্মীকে আটক করেছে যৌথ বাহিনী। জয়পুরহাট পুলিশ সুপার হামিদুল আলম জানান, জয়পুরহাট সদর থানায় পাঁচজন, পাঁচবিবিতে পাঁচজন ও আক্কেলপুর থানা থেকে দু’জনকে আটক করা হয়।
নেত্রকোনা : পুলিশ গত শনিবার রাতে নেত্রকোনা সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ জানায়, আটককৃত সবাই বিএনপির কর্মী-সমর্থক।
রংপুর : মাদ্রাসা সুপারসহ তিন জামায়াত-শিবির কর্মীকে গ্রেফতার করেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। গত শনিবার রাত থেকে গতকাল সকাল পর্যন্ত নীলফামারী ও জলঢাকায় অভিযান চালিয়ে এদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে নীলফামারী সদর উপজেলার লক্ষ্মীচাপ ইউনিয়নের দুবাছুড়ি দাখিল মাদ্রাসার সুপার আবদুল মোমিনও রয়েছেন। জলঢাকা থানার ওসি মনিরুজ্জামান মনির এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
ভালুকা : ময়মনসিংহের ভালুকা মডেল থানা পুলিশ গত শনিবার রাতে বিভিন্ন এলাকা থেকে চার ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। ভালুকা থানার ওসি (তদন্ত) মনিরুজ্জামান জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট ও মামলা রয়েছে।
বরগুনা : বরগুনা পৌরসভার কাউন্সিলর ও বিএনপি নেতা ফারুক শিকদারকে গত শনিবার রাতে পশ্চিম বরগুনাস্থ তার বাসা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরগুনা থানার ওসি আজম খান ফারুকী জানান, গ্রেফতারকৃতকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।
কলাপাড়া : পুলিশ গত শনিবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে। কলাপাড়া থানার ওসি কেএম তারিকুল ইসলাম এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
খুলনা : যৌথ বাহিনীর অভিযানে খুলনা জেলা ও মহানগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ১৩২ জন আটক হয়েছে। তাদের মধ্যে বিএনপি-জামায়াতসহ বিভিন্ন মামলায় অভিযুক্তরাও রয়েছে। গত শনিবার রাত থেকে গতকাল সকাল পর্যন্ত যৌথ বাহিনীর সদস্যরা এই অভিযান পরিচালনা করে। খুলনা জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিভূতিভূষণ জানান, যৌথ বাহিনীর অভিযানে আটককৃতদের গতকাল দুপুরে আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
গাজীপুর : যৌথ বাহিনী গত শনিবার রাতে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে মোট ২০ জনকে আটক করেছে। জেলা পুলিশের কন্ট্রোল রুম সূত্রে এ আটকের তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে।
বগুড়া : জেলায় যৌথ অভিযানে ৩৬ জনকে আটক করা হয়েছে। গত শনিবার রাত থেকে গতকাল ভোররাত পর্যন্ত জেলার ১০ থানায় অভিযান চালিয়ে র্যাব-পুলিশের সমন্বয় গঠিত যৌথ বাহিনী ৩৬ জনকে আটক করেছে। জেলা পুলিশের মিডিয়া বিভাগ সূত্রে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে।
ফেনী : দাগনভূঞা ও সোনাগাজী উপজেলায় গত শনিবার রাতে যৌথ বাহিনীর অভিযানে জামায়াত-বিএনপির ৯ কর্মী গ্রেফতার হয়েছে। এর মধ্যে সোনাগাজী উপজেলার সদর ইউনিয়নের শাহাপুর আশ্রয়ণ কেন্দ্র থেকে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। অন্যদিকে দাগনভূঞার ইয়াকুবপুর ইউনিয়ন থেকে গ্রেফতার করা হয় ছয় নেতাকর্মীকে। দাগনভূঞা থানার ওসি নিজাম উদ্দিন ও সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সুভাষ চন্দ্র পাল এই গ্রেফতার তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ