Home / জাতীয় / চট্টগ্রাম বিএনপির ১০ হাজার কর্মী ঢাকায়

চট্টগ্রাম বিএনপির ১০ হাজার কর্মী ঢাকায়

বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের ‘গণতন্ত্রের অভিযাত্রা’য় যোগ দিতে চট্টগ্রাম মহনাগর ও জেলা থেকে কমপক্ষে ১০ হাজার নেতা-কর্মী বিচ্ছিন্নভাবে ঢাকায় পোঁছে গেছে।চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি নেতারা জানিয়েছেন, সরকারি দলের বাধা ও নানা প্রতিবন্ধকতা, গ্রেফতার-হয়রানিতেও চট্টগ্রাম থেকে ঢাকামুখী জনস্রোত বন্ধ করতে পারেনি তারা।

আগামীকাল রোববার চট্টগ্রামের বিএনপি নেতা-কর্মীরা ঢাকার কয়েকটি নির্দিষ্ট পয়েন্টে সমবেত হয়ে মিছিল নিয়ে গণতন্ত্র অভিযাত্রায় অংশগ্রহণ করবে। চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সহসভাপতি আবু সুফিয়ান জানিয়েছেন, যেকোনো উপায়ে এই কর্মসূচি সফল করতে চট্টগ্রাম থেকে শনিবার সকাল পর্যন্ত বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের বড় অংশ আলাদাভাবে ঢাকায় পৌঁছেছে। এই সংখ্যা ১০ হাজারের কম হবে না। আগামীকাল সকালের মধ্যে আরও পাঁচ থেকে সাত হাজার নেতাকর্মী ঢাকায় পৌঁছতে সক্ষম হবে বলে আবু সুফিয়ান জানান।

এদিকে একাধিক বিএনপি নেতা অভিযোগ করেছেন, ট্রেনে ঢাকায় যাওয়ার জন্য টিকিট কাটার পরও যেতে পারেননি তারা। ট্রেন ঢাকায় যাবে না বলে তাদের টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে।

মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জমির উদ্দিন নাহিদ জানান, আমরা ট্রেনের টিকিটে কেটে ঢাকা যেতে না পেরে ভিন্ন কৌশলে ঢাকা যাচ্ছি।

অন্যদিকে বাসেও বাধা দেওয়া হচ্ছে বলে বিএনপি নেতা-কর্মীরা অভিযোগ করেছেন। চট্টগ্রাম থেকে সিটি গেট দিয়ে যাওয়া বেশ কয়েকটি গাড়িকে বাধা দেওয়া হয়েছে। তাই বেশির ভাগ বাস ফটিকছড়ি দিয়ে যাচ্ছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ফটিকছড়ি সড়ক দিয়ে ঢাকা মহাসড়কে উঠে ওই পথ দিয়ে অনেক নেতা-কর্মী ঢাকায় গেছেন।

এছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে আলাদাভাবে মিরসরাই পর্যন্ত গিয়ে সেখান থেকে এক সঙ্গে ঢাকায় যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, মহানগর বিএনপির সহসভাপতি আবু সুফিয়ানের নেতৃত্বে চান্দগাঁও, শোলকবহর, বহদ্দারহাট এলাকা থেকে তিনটি গাড়িতে নেতা-কর্মীরা শনিবার সকালে ঢাকায় পৌঁছেছেন। কেন্দ্রীয় যুবদলের সহসভাপতি আবুল হাশেম বক্কর (কারাবন্দি) গ্রুপের যুবদল নেতা সাইফুর রহমান শপথ ও শিহাব উদ্দিন মোমিনের নেতৃত্বে একটি গ্রুপ ঢাকায় গেছেন। কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহসভাপতি ও পাহাড়তলী থানা ছাত্রদলের সভাপতি মঞ্জুর আলম মঞ্জুরের নেতৃত্বে পাহাড়তলী কাট্টলী থেকে একটি গ্রুপ শুক্রবার রাতে ঢাকা পোঁছে গেছে।

বন্দর থানার সভাপতি এমএ আজিজ, পতেঙ্গা থানা বিএনপির সভাপতি মো. মিয়া ভোলার নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী কৌশলে ঢাকা পৌঁছে গেছেন।

এদিকে খুলশী থানা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক শাহ আলমের নেতৃত্বে নেতা-কর্মীরা বাসযোগে ঢাকায় পৌঁছেছেন। কোতোয়ালী থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হারুণ জামানের নেতৃত্বে একটি গ্রুপ ঢাকায় পৌঁছেছে।

কোতোয়ালী থানা বিএনপির সভাপতি এমএ সবুর ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান, মহানগর ছাত্রদলের নেতা রাশেদ খানের নেতৃত্বে ছাত্রদলের দ্বিতীয় গ্রুপটি শুক্রবার রাতেই ঢাকা পৌঁছে গেছেন। বন্দর শ্রমিক দল নেতা শেখ নুরুল্লা বাহার, কাউন্সিলর সরফরাজ কাদের রাসেল ও কাউন্সিলর হাসান মুরাদ নিজ নিজ গ্রুপের নেতা-কর্মীদের নিয়ে ঢাকায় পৌঁছে গেছেন।

এদিকে চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া, আনোয়ারা, বাঁশখালী, সাতকানিয়াসহ বিভিন্ন এলাকায় বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা ঢাকায় যাওয়ার লক্ষ্যে দফায় দফায় প্রস্তুতিসভা করেছে। আজ রাতের মধ্যে চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলা থেকে কমপক্ষে পাঁচ থেকে সাত হাজার নেতা-কর্মী ঢাকায় পৌঁছবে বলে বিএনপি নেতাদের সূত্রে জানা গেছে।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ