Home / জাতীয় / জয়পুরহাটে সংঘর্ষ, গুলিতে নিহত ২

জয়পুরহাটে সংঘর্ষ, গুলিতে নিহত ২

joypurhatজয়পুরহাট সদর উপজেলায় আজ রোববার বিকেলে জামায়াত-শিবিরের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় গুলিতে কমপক্ষে দুজন নিহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ এক নারী ও মাদ্রাসাপড়ুয়া এক শিশুর অবস্থা আশঙ্কাজনক। পুরানাপৈল ইউনিয়নের হালুত্তি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে জয়পুরহাট পৌর এলাকায় কাল ভোর ছয়টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

নিহত দুজন হলেন, জলাতুল গ্রামের বাসিন্দা ইকবাল হোসেনের ছেলে সাকিব হোসেন ও স্থানীয় বাসিন্দা ফিরোজ হোসেন। ফিরোজ হোসেন একজন ভ্যানচালক বলে জানা গেছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিত্সাধীন অপর দুজন হলেন হালুত্তি গ্রামের নবম শ্রেণীর মাদ্রাসা ছাত্র শাকিল আহমেদ এবং দস্তপুর গ্রামের আসমা বেগম ওরফে রাজিয়া।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, আজ বেলা তিনটার দিকে জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা পুরানপৈল বাজারে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকে পেট্রলবোমা ছুড়ে মারেন। খবর পেয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এসে জামায়াত-শিবির কর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেন। পরে বিকেল চারটার দিকে জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা দা-রামদা, তির-ধনুক, লাঠি-সোঁটাসহ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে পাশের হালুত্তি গ্রামে জড়ো হন। তাঁরা হালুত্তি গ্রামের সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেন। বিকেল সোয়া চারটার দিকে পুলিশ-র‌্যাব-বিজিবির সদস্যরা এলে জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা তাঁদের লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ও তির ছোড়েন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরাও গুলি ও রাবার বুলেট ছোড়েন।

জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিত্সক সাইদুর রহমান ডটকমকে জানান, দুজনকে চিকিত্সা দেওয়া হচ্ছে। জেলার নির্বাহী হাকিম মোহাম্মাদ ইয়াছিন জয়পুরহাট পৌর এলাকায় আজ বিকেল পাঁচটা থেকে কাল ভোর ছয়টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেছেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান ডটকমকে জানান, হালুত্তি গ্রামে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা পৌঁছালে জামায়াত-শিবির সংগঠিত হয়ে তাঁদের লক্ষ্যে করে ইটপাটকেল, তির ছুড়ে আক্রমণের চেষ্টা করে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ-র‌্যাব-বিজির সদস্যরা রাবার বুলেট ও গুলি ছুড়তে বাধ্য হন। তবে হতাহতের ঘটনা তাঁর জানা নেই বলেও তিনি জানান।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ