Home / আইন / ‘বিজয়চিহ্ন’ দেখালেন কাদের মোল্লার স্ত্রীও

‘বিজয়চিহ্ন’ দেখালেন কাদের মোল্লার স্ত্রীও

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডাদেশ পাওয়া কাদের মোল্লার স্ত্রী সানোয়ারা জাহান আজ মঙ্গলবার ‘বিজয়চিহ্ন’ দেখিয়েছেন। ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে কাদের মোল্লার সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার পথে মাইক্রোবাসে বসে তিনি সাংবাদিকদের এ বিজয়চিহ্ন দেখান।কাদের মোল্লা

এর আগে গত ৫ ফেব্রুয়ারি ছয়টি অভিযোগের মধ্যে পাঁচটি সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড পেয়ে ‘বিজয়চিহ্ন’ দেখিয়েছিলেন জামায়াতের নেতা কাদের মোল্লা। তবে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ একাত্তরের মানবতাবিরোধী জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল কাদের মোল্লার সেই দাম্ভিক আচরণটি মেনে নিতে পারেননি। তাঁদের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছিল তীব্র প্রতিক্রিয়ার। ক্ষুব্ধ মানুষ সেদিন বিকেল থেকে জড়ো হতে থাকেন রাজধানীর শাহবাগ চত্বরে। প্রতিবাদী এই মানুষগুলো স্বতঃস্ফূর্তভাবে গড়ে তোলেন গণজাগরণ মঞ্চ। দীর্ঘ সময় ধরে চলা তারুণ্যের এই প্রতিবাদী অবস্থানের কারণে সরকার আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিটি) আইন সংশোধন করতে বাধ্য হয়েছিল। ১৭ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক অপরাধ (ট্রাইব্যুনালস) সংশোধন বিল, ২০১৩ জাতীয় সংসদে পাস হয়। সংশোধনের ফলে আসামিপক্ষের মতো রাষ্ট্রপক্ষও রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার সমান সুযোগ পায়। রাষ্ট্রপক্ষের করা আপিলের শুনানি শেষে হওয়ার ৫৫ দিনের মাথায় ১৭ সেপ্টেম্বর প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ সংখ্যাগরিষ্ঠ মতামতে আবদুল কাদের মোল্লাকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেন।

কারা কর্তৃপক্ষের চিঠি পেয়ে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আবদুল কাদের মোল্লার সঙ্গে দেখা করেন তাঁর স্ত্রীসহ পরিবারের সদস্যরা। প্রথমে কাদের মোল্লার স্ত্রী-মেয়েদের এবং পরে ছেলে ও অন্য আত্মীয়স্বজনকে বহন করা মাইক্রোবাস কারাগারের ভেতর থেকে বেরিয়ে যায়। পরিবারের আবেদন অনুযায়ী কারা কর্তৃপক্ষ ২৩ জনকেই কাদের মোল্লার সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দেয়।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ