Home / জাতীয় / কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকরের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, মন্ত্রণালয়ে বৈঠক অনুষ্ঠিত

কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকরের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, মন্ত্রণালয়ে বৈঠক অনুষ্ঠিত

কাদেরমানবতাবিরোধী অপরাধে জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আব্দুল কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকর করার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় ট্রাইব্যুনালের ডেপুটি রেজিস্ট্রার অরুণাভ চক্রবর্তী লাল কাপড়ে মোড়ানো মৃত্যুদণ্ডের পরোয়ানার কপি কারা কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করেন। এরপর রাত ৯টার দিকে কাদের মোল্লাকে কারা সেল ‘চম্পা কলি’ থেকে কনডেম সেলে নেওয়া হয়েছে।

সাজা কার্যকরের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে সোমবার সকালে আইন মন্ত্রণালয়ে বৈঠকে বসেছিলেন আইন সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, আইজিপি, আইজি প্রিজন সহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ।

একই সঙ্গে মৃত্যুদণ্ডাদেশ কার্যকরের প্রাক-আনুষ্ঠানিকতাও চলছে কেন্দ্রীয় কারাগারে। দায়িত্বশীল কর্মকর্তা ও কারাসূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

কাদের মোল্লা কারাবিধি ৯৯১ অনুযায়ী রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চান তাহলে যেন অতি দ্রুত এ সংক্রান্ত কাগজপত্র রাষ্ট্রপতির কাছে পৌঁছানো যায় সে প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছ কারা কর্তৃপক্ষ। যদিও মধ্যরাতে অথবা রাতের শেষভাগে রায় কার্যকরের গুজব ছড়িয়ে পড়েছে।

রোববার সন্ধ্যায় কারা মহাপরিদর্শকের (আইজি প্রিজন) কাছে পরোয়ানা পৌঁছানোর পরই কারাগার ও এর আশপাশের এলাকায় ব্যাপক নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। তবে দায়িত্বশীল পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, কোনো চাঞ্চল্যকর মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি কারাগারে থাকলে স্বাভাবিকভাবেই নিরাপত্তা জোরদার করা হয়।

কারা সূত্র জানায়, মহান বিজয় দিবসের দিন অথবা এর আগের যে কোনো দিন কাদের মোল্লার ফাঁসির রায় কার্যকর করা হতে পারে। ১৪ ডিসেম্বরের সম্ভাবনাই সবচেয়ে বেশি। রবিবার দিনগত রাতের শেষভাগে ফাঁসির রায় কার্যকরের গুজব থাকলেও এ ব্যাপারে কেউ নিশ্চিত নয়। মামলায় আসামিপক্ষ থেকে রিভিউ দায়েরের কথা বলা হলেও সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় রিভিউ দায়েরের কোনো সুযোগ নেই। তবে আব্দুল কাদের মোল্লার সঙ্গে কারাগারে সাক্ষাতের অনুমতি চেয়ে আবেদন করেছেন তার আইনজীবীরা। রবিবার বিকালে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার বরাবর এ আবেদন করা হয়। কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে আপিল বিভাগের রায়ের রিভিউ আবেদন করতে আসামিপক্ষের পাঁচ আইনজীবী কারাগারে তার সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য এ আবেদন করেন।

প্রসঙ্গত- গত বৃহস্পতিবার রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি প্রকাশ করেন সুপ্রিমকোর্ট। এরআগে গত ৫ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের দেওয়া যাবজ্জীবন সাজা বাড়িয়ে ১৭ সেপ্টেম্বর সংক্ষিপ্ত রায়ে কাদের মোল্লাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের রায় দেন সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ। সংখ্যাগরিষ্ঠ মতের ভিত্তিতে প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের পাঁচ বিচারপতির পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ ওই রায় দেন।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ