Home / শীর্ষ সংবাদ / কনডেম সেলে অস্থির কাদের মোল্লা, মঞ্চও প্রস্তুত

কনডেম সেলে অস্থির কাদের মোল্লা, মঞ্চও প্রস্তুত

জামায়াত নেতা আবদুল কাদের মোল্লার আপিলের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর বৃহস্পতিবার তাকে কাশিমপুর থেকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করা হয়। সূত্র জানায়, আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর এখন শুধু রাষ্ট্রপতির কাছে সাজা মওকুফের আবেদন জানানোর সুযোগই কাদের মোল্লার রয়েছে। তিনি যদি ক্ষমা না পান, সে ক্ষেত্রে ঢাকার ফাঁসির মঞ্চে রায় কার্যকরের সম্ভাবনা রয়েছে আটক এমন আসামিদের মধ্যে অন্যতম হলেন কাদের মোল্লা। তার রায় এই কারাগারেই কার্যকরের সম্ভাবনা রয়েছে। কারাসূত্র জানায়, আগামী সাত দিনের মধ্যে রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আবেদন করতে হবে কাদের মোল্লাকে। সেখানে তিনি ক্ষমা না পেলে জেল কোড অনুযায়ী এই ডিসেম্বরেই রায় কার্যকরের সম্ভাবনা রয়েছে। কারাগারের অপর একটি সূত্র জানায়, কাদের মোল্লার রায় ঘিরেই ফাঁসির মঞ্চের তৎপরতা চলছে। ইতোমধ্যে সংস্কার কাজ শেষ হয়েছে। আগামী সপ্তাহে বালুর বস্তা বেঁধে চলবে ফাঁসির মহড়া। ফাঁসির সেই বিশেষ দড়ির পরিচর্যাও চলছে বেশ ভালোভাবেই। ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের এই ফাঁসির মঞ্চে সর্বশেষ ফাঁসির রায় কার্যকর করা হয় প্রায় চার বছর আগে। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার ফাঁসির আসামিদের মধ্যে পাঁচজনকে এই মঞ্চেই ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রায় কার্যকর করা হয়। এরপর আর কোনো ফাঁসির আসামির রায় কার্যকর হয়নি ঢাকার ফাঁসির মঞ্চে। এই মঞ্চেই কাদের মোল্লার ফাঁসির রায় কার্যকর হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
এদিকে, বৃহস্পতিবার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর ওই রাতেই প্রথম কনডেম সেলে ঢুকেন এই জামায়াত নেতা। তাঁকে রাখা হয়েছে ৮ নম্বর কনডেম সেলে। পরদিন শুক্রবার দিনটিতে অস্থিরতায় কেটেছে মানবতাবিরোধী অপরাধে দণ্ডপ্রাপ্ত এই নেতার। কারা সূত্র জানায়, দিনের বেশিরভাগ সময় এমনিতেই অস্থিরতার মধ্যে ছিলেন, তাছাড়া মাঝে মাঝে চিন্তিত দেখা গেছে কাদের মোল্লাকে। কখনও কখনও বিমর্ষ ছিলেন এই জামায়াত নেতা।
এদিন দুই মেয়ে এবং এক ছেলে তাঁর সঙ্গে দেখা করেছেন। ছেলে-মেয়েদের সঙ্গে কাদের মোল্লা আধা ঘণ্টা সময় কাটিয়েছেন। যেহেতু ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তদের জন্য বাইরের খাবার দেয়ার নিয়ম নাই। তাই জেলের বরাদ্দ খাবারই খেয়েছেন কাদের মোল্লা। জেলে সকালে লাল আটার রুটি ও সবজি অথবা এক টুকরা গুড়, দুপুরে এক থালা ভাত, এক টুকরা মাছ অথবা মাংস এবং এক বাটি ডাল এবং রাতে সবজি ভাত দেয়া হয় কয়েদিদের। জীবনের বাকি কয়টা দিন এই খেয়েই কাটাতে হবে কাদের মোল্লাকে।

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ