Home / জাতীয় / ভোটকেন্দ্রে আগুন, ব্যাপক ক্ষতির মুখে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

ভোটকেন্দ্রে আগুন, ব্যাপক ক্ষতির মুখে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঠেকাতে বিরোধী দলের লাগাতার অবরোধ মধ্যে শুক্রবার হরতাল কর্মসূচি ঘোষণার পর সারাদেশে অন্তত ২৫টি জেলায় ভোট কেন্দ্রে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে ঝিনাইদহ, সীতাকুন্ড, ফেনী, বরিশালসহ বিভিন্ন জেলায় ভোট কেন্দ্রে হিসেবে নির্বাচিত প্রায় অর্ধশতাধিক স্কুল কক্ষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

ঝিনাইদহ 

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার দুইটি ও শৈলকুপা পৌরসভার এলাকায় দুইটি ভোটকেন্দ্রে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। আগুনে চারটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জানালা, দরজা ও আসবাবপত্র ভস্মিভূত হয়।

শৈলকুপা থানার উপ-পরিদর্শক আশিকুর রহমান জানান, শুক্রবার মধ্যরাতে একদল দুর্বৃত্ত ললিত ভুইয়া সরকারী প্রাইমারী স্কুল ও একই উপজেলার ত্রিবেনী সরকারী প্রাইমারী স্কুলের ভোটে কেন্দ্রে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দ্রত পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে পুলিশ ও দমকল বাহিনীর সদস্যরা স্কুলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

এছাড়া সদর উপজেলার বিষয়খালী বাজার ও মহারাজপুর গ্রামের দুইটি ভোট কেন্দ্রে আগুন দেয়া হয়। স্থানীয় মহারাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু বক্কর মল্লিক জানান, শনিবার ভোর ৬টার দিকে মটর সাইকেলযোগে এসে প্রথমে বিষয়খালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ও পরে মহারাজপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা।

সীতাকুন্ড
শুক্রবার রাত সীতাকুন্ড পৌরসভা আলম শফী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বুথ তৈরির জন্য রাখা বাঁশ ও কাপড়ে এবং চেয়ারে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা।

ভোটকেন্দ্রের বুথ তৈরীর সরঞ্জাম পড়ে যায় বলে জানান, সীতাকুন্ড থানার ওসি ইফতেখার হাসান। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে বলেও তিনি জানান।

ফেনী
ফেনীর সোনাগাজি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের গোয়ালিয়া গ্রামে অন্নদাচরণ সরকারি বিদ্যালয় কেন্দ্রে শুক্রবার রাত সোয়া ১০টার দিকে পেট্রোল ঢেলে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

সোনাগাজি থানার ওসি সুভাষ চন্দ্র পাল জানান, স্থানীয়রা ছুটে গিয়ে আগুন নেভাতে পেরেছেন। এতে বিদ্যালয়ের একটি কক্ষ পুরোপুরি পুড়ে গেছে।

বরিশাল

বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলায় মাধব পাশায় শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে মাধবপাশা স্কুল অ্যান্ড কলেজের দক্ষিণ পাশের একটি কক্ষে আগুন দেয়া হয়। তবে এতে তেমন কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে জানান বাবুগঞ্জ থানার ওসি।

সিরাজগঞ্জ
সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে শুক্রবার গভীর রাতে ২টি ভোট কেন্দ্রে আগুন দিয়েছে, এতে ৪টি কক্ষ পুড়িয়ে যায়।

উপজেলা রিটানিং অফিসার ও নির্বাহী অফিসার তরিকুল ইসলাম জানান, উপজেলা সদরের দেলুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও দৌলতপুর ইউনিয়নের চরনবীপুর কান্দাপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় আগুন দেয়ার পর স্থানীয়রা আগুন নিয়ন্ত্রণ করে।

নীলফামারী
নীলফামারীর ডোমার উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাদুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে একটি কক্ষ পুড়ে গেছে। বামুনিয়া ইউনিয়নের গোবাচরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অগ্নিসংযোগের চেষ্টা চালায় দুর্বৃত্তরা।


দিনাজপুর

দিনাজপুর সদর উপজেলার তিনটি ভোট কেন্দ্রে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে এসব ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রাতে সদর উপজেলার বড়ইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অফিসকক্ষে জানালা দিয়ে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। এতে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কক্ষ ও অফিস কক্ষের চেয়ার-টেবিল, জাতীয় পতাকা, রেজাল্ট শিট, বই ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পুড়ে যায়। সকালে স্থানীয়রা পুলিশকে জানালেও এখন পর্যন্ত প্রশাসনের কেউ ঘটনাস্থলে যাননি বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা।

এদিকে, রাতে চাঁদগঞ্জ ভোট কেন্দ্রে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে স্থানীয়রা এসে আগুন নিভিয়ে ফেলে। এতে ওই ভোট কেন্দ্রের একটি কক্ষের দরজা পুড়ে গেছে।

অপরদিকে, শহরের তবিরউদ্দিন মেমোরিয়াল বিদ্যালয়ে আগুন দিলে ভোট কেন্দ্রের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আনসার-ভিডিপির সদস্যরা আগুন নিভিয়ে ফেলে।

লক্ষ্মীপুর
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার রসূলপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, সোনাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় (হোনার বাড়ি) রাঘবপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ভোর রাতে আগুন দেয়া হয়েছে। এতে বিদ্যালয়ের কয়েকটি শ্রেণী কক্ষের বেশ কিছু বই পুড়ে যায়।

মানিকগঞ্জ
মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার দুটি ভোট কেন্দ্রে আগুন দেয়া হয়েছে। উপজেলার পয়লা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নেহালপুর ব্র্যাক প্রাথমিক বিদ্যায়লয়ের ভোট কেন্দ্রে পেট্রোল দিয়ে এ আগুন দেয়া হয়। এতে উভয় কেন্দ্রের চেয়ার-টেবিল ও আসবাবপত্র ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।


মেহেরপুর

মেহেরপুর পৌর শহরের শনিবার বেলা ১১টার দিকে পৌর ভোট কেন্দ্রে অগ্নিসংযোগ ও ককটেল বিস্ফোরণ করেছে দুর্বৃত্তরা।

স্থানীয়রা জানায়, শহরের বড়বাজার এলাকায় মোহাম্মদ আলী মাকের্টে সামনে দুইটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে শহরে আতঙ্ক তৈরি করে দুর্বৃত্তরা। পরে তারা পৌর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট এসে আগুন নেভায়। তবে আগুনে ভোট কেন্দ্রের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

এছাড়া রাজশাহীতে চারটি, সুনামগঞ্জে তিনটি, নেত্রকোনায় একটি, ভোলায় চারটি, বরগুনায় দুইটি, রংপুরের পীরগঞ্জে চারটি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একটি ভোটকেন্দ্রে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটে। বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে, কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ, সিলেটের জৈন্তাপুর, নাটোরের সিংড়া, গাইবান্ধা, যশোরের মনিরামপুর ও শেরপুরের ভোট কেন্দ্রে আগুন দেয়ার খবর পাওয়া গেছে। এর আগে বৃহস্পতিবার ফেনীর পাঁচটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আগুন দেয়া হয়।

 

আজকের নিউজ আপনাদের জন্য নতুন রুপে ফিরে এসেছে। সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। - আজকের নিউজ